21.4 C
Toronto
বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪

সাশ্রয়ী আবাসন নিয়ে মেয়র প্রার্থীদের ভিন্ন ভিন্ন পরিকল্পনা

সাশ্রয়ী আবাসন নিয়ে মেয়র প্রার্থীদের ভিন্ন ভিন্ন পরিকল্পনা
জশ ম্যাটলো বলেছেন তার আবাসন কৌশলের মধ্যে রয়েছে সিটিতে সাশ্রয়ী বাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি করা মার্ক সন্ডারস ভবিষ্যৎ উন্নয়নের জন্য সাশ্রয়ী আবাসনের ওপর কর তুলে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন

টরন্টোর মেয়র নির্বাচনে ভোট গ্রহণের বাকি আছে এক সপ্তাহের কিছু বেশি সময়। শীর্ষস্থানীয় প্রার্থীদের প্রায় সবাই টরন্টোর বাড়ি ক্রয়ের সক্ষমতার যে সংকট তা মোকাবিলায় তাদের পরিকল্পনা প্রকাশ করেছেন।

বাড়ির সরবরাহ বাড়ানোর উপায় খুঁজে বের করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সবাই। অনেকে খালি পড়ে থাকা, সিটির মালিকানাধীন জমিতে সাশ্রয়ী বাড়ি নির্মাণের আরও দক্ষ উপায় খোঁজার কথা বলেছেন। অনুমোদন প্রক্রিয়া দ্রুত করা এক্ষেত্রে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিশ্রুতি। কেউ কেউ নতুন ভাড়া বাড়ি নির্মাণ ও পুরোনোগুলো ভাঙা বন্ধ করার মাধ্যমে ভাড়াটিয়াদের পক্ষে দাঁড়ানোর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন।

- Advertisement -

প্রার্থীদের সবাই এই বিষয়ে একমত হয়েছেন যে, নগরীতে আবাসন আরও বেশি সাশ্রয়ী হওয়া প্রয়োজন। নির্বাচনের দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে থাকা অলিভিয়া চাউ বলেছেন, সাশ্রয়ী আবাসনে তহবিল জোগান দিতে তিনি খালি বাড়ির ওপর কর এক শতাংশ থেকে বাড়িয়ে তিন শতাংশ করবেন।
জশ ম্যাটলো বলেছেন, তার আবাসন কৌশলের মধ্যে রয়েছে সিটিতে সাশ্রয়ী বাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি করা। মার্ক সন্ডারস ভবিষ্যৎ উন্নয়নের জন্য সাশ্রয়ী আবাসনের ওপর কর তুলে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অ্যান্থনি ফারের শিবির অধিক সংখ্যক সাশ্রয়ী আবাসনের জন্য তহবিলের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট করে কিছু বলেনি। তবে ক্রয়ক্ষমতা বাড়াতে প্রথমবারের মতো ক্রেতাদের জন্য মিউনিসিপালে জমি হস্তান্তর কর তুলে দেবেন বলে জানিয়েছেন।

নগরীর হাউজিং নাউ কর্মসূচি জোরদার করার লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন ব্র্যাড ব্র্যাডফোর্ড। বিদ্যমান সিটি বিল্ডিং ট্যাক্স লেভি থেকে সাশ্রয়ী আবাসনের তহবিল জোগাড়ের পরিকল্পনা করছেন আনা বাইলাও। এর ফলে ২০৩১ সালের মধ্যে ২ লাখ ৮৫ হাজার নতুন বাড়ি নির্মাণ করা সম্ভব হবে। এই বাড়ির ২০ শতাংশ ভাড়াভিত্তিক হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

মিটজি হান্টার সম্পদ কর ৬ শতাংশ বৃদ্ধির মাধ্যমে সাশ্রয়ী আবাসনের তহবিল জোগাড়ের পরিকল্পনা করছেন। তার এই পরিকল্পনা অন্য স্তরের সরকারের ওপর নির্ভরশীল নয় বলে জানিয়েছেন এই মেয়র প্রার্থী। তিনি বলেন, আমি আশা, শুভেচ্ছা ও ম্যাজিক দিয়ে আমার পরিকল্পনা তৈরি করবো না।

তবে সব ধারণা নিয়েই সন্দেহ থাকছেই, যখন অর্থের স্বল্পতা রয়েছে। একজন বিশেষজ্ঞ বলেন, ভবিষ্যৎ মেয়র ও বর্তমান সিটি কাউন্সিলের সাশ্রয়ী বাড়ির লক্ষ্য অর্জনে প্রাদেশিক ও ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে অর্থ নেওয়া বাস্তবানুগ। তাদের একার পক্ষে আবাসন সংকট নিরসন করা সম্ভব নয়। সব পর্যায়ের সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি ও অলাভজনক খাতের সহায়তা প্রয়োজন হবে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles