18.5 C
Toronto
সোমবার, জুলাই ২২, ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নিন্দায় চীনের সেনাবাহিনী

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নিন্দায় চীনের সেনাবাহিনী
<br >ইচ্ছাকৃতভাবে ঝুঁকির উস্কানি দেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নিন্দা করেছে চীনের সেনাবাহিনী তাইওয়ান প্রণালীর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নৌবাহিনী বিরল যৌথ সেইলিংয়ের ঘটনায় এই নিন্দা জানিয়েছে দেশটি

ইচ্ছাকৃতভাবে ঝুঁকির উস্কানি দেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নিন্দা করেছে চীনের সেনাবাহিনী। তাইওয়ান প্রণালীর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নৌবাহিনী বিরল যৌথ সেইলিংয়ের ঘটনায় এই নিন্দা জানিয়েছে দেশটি।

যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর সপ্তম নৌবহর বলেছে, মিসাইল ধ্বংসকারী ইউএসএস চাঙ্গ-হুন ও কানাডার এইচএমসিএস মন্ট্রিয়ল শনিবার রুটিন ট্রানজিট পরিচালনা করে। তাইওয়ান প্রণালীর মধ্য দিয়ে চাঙ্গ-হুন ও মন্ট্রিয়লের দ্বিপক্ষীয় ট্রানজিট মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিকের ব্যাপারে আমাদের ও আমাদের মিত্রদের প্রতিশ্রুতির অংশ।

- Advertisement -

চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড বলেছে, পুরো সময় তাদের বাহিনী জাহাজগুলোর ওপর নজর রেখেছিল এবং আইন ও নীতিমালা অনুযায়ী পরিস্থিতি সামাল দিয়েছে। সংশ্লিষ্ট দেশগুলো তাইওয়ান প্রণালীতে ইচ্ছাকৃতভাবে এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে, ইচ্ছাকৃতভাবে ঝুঁকির উস্কানি দিচ্ছে, আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা নষ্ট করছে। সেই সঙ্গে তাইওয়ান স্বাধীন বাহিনীর উদ্দেশে ভুল বার্তা দিচ্ছে।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, দুটি জাহাজ প্রণালীর মধ্য দিয়ে উত্তর দিকে যাত্রা করে এবং তারা অস্বাভাবিক কিছু প্রত্যক্ষ করেনি।
যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজ মাসে একবার প্রণালীর মধ্য দিয়ে ট্রানজিট নিলেও অন্য মিত্রদের ক্ষেত্রে বিষয়টি অস্বাভাবিক। যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের প্রতিরক্ষা প্রধানরা যখন সিঙ্গাপুরে আঞ্চলিক নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন ঠিক তখন এই ঘটনা ঘটলো। সামিরক আলোচনা না করার জন্য চীনকে ভর্ৎসনা করেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন। এর মধ্য দিয়ে শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো তাইওয়ান ও দক্ষিণ চীন সাগরের আঞ্চলিক দাবি নিয়ে বিবাদ জিইয়ে রাখলো।

এদিকে এই যাত্রার ব্যাপারে চীনের সামরিক বাহিনী তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া দেখায়নি। উত্তেজনা সৃষ্টির চেষ্টার জন্য নিয়মিতভাবে তারা যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা জানিয়ে আসছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles