16.1 C
Toronto
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

হেনস্থার অভিযোগ আনলেন মুসলিম দুই বোন

- Advertisement -
হেনস্থার অভিযোগ আনলেন মুসলিম দুই বোন
ছবি/ জন টাইসন

নিউফাউন্ডল্যান্ডের সেইন্ট জোন’স-এর দুই মুসলিম বোন এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন। তাদের অভিযোগ, ওই ব্যক্তি কর্মক্ষেত্রে তাদের দিকে এগিয়ে এসে চিৎকার করতে থাকে এবং এরপর ১৫ বছর বয়সী বোনকে হাতের তালু দিয়ে মাথায় আঘাত করে।

১৮ বছর বয়সী আসমাহান আল সালুম ৭ মে ঘটে যাওয়া ওই ঘটনার একটি ভিডিও চিত্র ধারণ করেন, যা দ্য কানাডিয়ান প্রেস দেখেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, ছোট সাদা দাড়ি ও কমলা রঙের হ্যাট পরিহিত বয়স্ক এক ব্যক্তি ১৫ বছর বয়সী মালেক আল সালুমকে আঘাত করার আগে চিৎকার করে বলছে, তোমাদের কাজ কী আমি জানি না। এরপর মালেক হোঁচট খেয়ে পড়ে যান এবং ওই ব্যক্তির মুখে আইসড কফি ছুড়ে মারেন।

ওই ব্যক্তি পুনরায় তার বোনের দিকে এগোতে থাকলে আসমাহান ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করতে থাকেন। বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, মালেক এরপর ওই ব্যক্তির মুখে গ্লাস দিয়ে আঘাত করেন। এরপর ওই ব্যক্তি পিছু হটে এবং পালিয়ে যায়।

মালেক বলেন, আমি সবাইকে তাদের নিজেদেরই রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাবো। আপনার গায়ের রঙ কী, কোথা থেকে এসেছেন এবং কীভাবে জীবন-যাপন করেন সেগুলো কোনো বিষয় নয়। কাউকে আপনার ওপর আঘাত করার সুযোগ দেবেন না এবং চুপ করে বসে থাকবেন না। আপনাকে লোকেদের সঙ্গে কথা বলতে হবে।
সিরিয়া বংশোদ্ভুত এই দুই বোন সাত বছর আগে পরিবারের সঙ্গে সেইন্ট জোন’স-এ চলে আসেন। আসমাহান বলেন, তারা ও তাদের সহকর্মীদের সবাই হিজাব পরিহিত ছিলেন এবং তারা যে ফাস্ট-ফুড রেস্তেরাঁয় কাজ করেন সেখান থেকে আবর্জনা নিয়ে বাইরে পা রাখামাত্র ওই ব্যক্তি তাদের দিকে এগিয়ে আসতে থাকে। এর পরপরই সে তাদের উদ্দেশ্য করে বর্ণবাদী মন্তব্য করতে থাকে। আমরা আরবিভাষী এবং তার কথার জবাব দিতে পারিনি। প্রথমে আমরা মনে করেছিলাম, ওই ব্যক্তি ঠাট্টা করছে। কিন্তু পরবর্তীতে এটি গুরুতর পর্যায়ে চলে যায়।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles