-6.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২২

পিতাকে সে ডাকতো ‘আব্বি’

- Advertisement -
সে ডাকতো ‘আব্বি’

টিভিতে খবর পড়ে আমার এক বন্ধ‍ু। শুদ্ধ বাংলায় কথা বলে। তাঁর পিতাকে সে ডাকতো ‘আব্বি’। আমি আমার পিতাকে ডাকতাম ‘আব্বা’। আমার ছেলে মেয়ে আমাকে ডাকে ‘আব্বু’ বলে। এর মধ্যে তেমন পার্থক্য দেখিনা। শুধু আকার, হ্রসুকার এর পার্থক্য। তবে বাবাটা সম্পুর্ণ বিপরীত। কেউ কেউ ডাকে। আমি একবার এক ভণ্ড পীরকে ‘বাবা’ ডেকেছিলাম। কাজ হয়নি।

ইউনিভার্সটিতে গিয়েছিলাম গ্রাম থেকে। দেখি কেউ আব্বাকে ডাকে পাপ্পা, আবার কেউ কেউ ডেডি, ড্যাড বলে। অবশ্য তদদিনে আমার আব্বাও ডেড। অর্থ্যাৎ বেঁচে নেই। শ্বশুরকেও আব্বা ডাকার সুযোগ ছিল না। কারন বিয়ের আনেক আগেই তিনি পরলোকে।

- Advertisement -

কানাডার জর্জ ব্রাউন কলেজে আমার এক ক্লাসমেট ছিল। নাম ‘আব্বি’। অনেকেই এই নামে ডাকতো তাকে। আমি ডাকিনি। শরম লাগে। সুইডিশ এক পপ গ্র‍ুপের নাম আব্বা। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত। বেশ জনপ্রিয়।

আমার আব্বাও ছিলেন বেশ জনপ্রিয়। সাবার কাছেতো বটেই, আমার কাছেও। আব্বা, আব্বি, বাবা, ড্যাডি সেই যাই হোক না কেন,বিশ্বের সব পিতাদের প্রতিই অনেক শ্রদ্ধা। একই সাথে মায়েদেরও। যারা অনেকেই আমার ময়ের মতো পিতার দায়িত্বটাও পালন করেছিলেন।

টরন্টো, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles