-14.4 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ২৪, ২০২২

প্রকাশ্যে শ্রীলেখার অল্পবয়সী পার্টনার?

- Advertisement -
ছবি সংগ্রহ

সোশ্যাল মিডিয়ায় বরাবরই রাখঢাকহীন শ্রীলেখা। মনের কথা মন খুলে বলেন তিনি, বিতর্কেও জড়ান। সেসবে মাথা ঘামান না শ্রীলেখা।

কয়েক দিন আগে ‘মানিকে মাগে হিথে’ গানে নেচে ‘বুড়ো বয়সের শখ’ মিটিয়েছিলেন। দ্রুত ভাইরাল হয় সেই ভিডিও। আর এবার ফের নতুনভাবে ধরা দিলেন শ্রীলেখা। ভক্তদের দেখালেন নিজের নতুন পার্টনারকে। ফেসবুকে নিজের নতুন পার্টনারের সঙ্গে ছবি দিয়ে শ্রীলেখা লিখেছেন, মিট মাই নিউ পার্টনার। আরে জিম পার্টনার, তোমরাও না…’

- Advertisement -

কিছুদিন আগেই ভেনিসে গিয়ে অল্পবয়সী এক রেস্তোরাঁর ছেলের প্রেমে পড়েন শ্রীলেখা। নিজেই জানিয়েছিলেন বিষয়টি। শুভাকাঙ্ক্ষীরা বা নেটিজেনরা জিজ্ঞেস করেছিল প্রেম করবে কি না, যুবকের সৌন্দর্যে শ্রীলেখা মন হারিয়েছেন। তাই দাম জিজ্ঞেস না করেই এক প্লেট মাছ অর্ডার করেন তিনি। যার জন্য শ্রীলেখাকে গুনতে হয়েছে ৬৩ ইউরো, যা ভারতীয় রুপিতে প্রায় পাঁচ হাজার। তাহলে কি মন গলে গিয়েছে শ্রীলেখার? তিনিও কি এই প্রস্তাবে রাজি? বিদেশ থেকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে শ্রীলেখা বলেন, ‘মাথা খারাপ? কুকুর আর নিজের মেয়েকে সামলানোর পর অত ছোট প্রেমিককে সামলাতে পারব না! ও আমার মেয়ের প্রেমিক হওয়ার যোগ্য!’

এই কথার রেশ শেষ হয়নি। কেননা কদিন আগেই জানালেন- অসংখ্য অল্প বয়সী ছেলে তাঁকে প্রস্তাব দিচ্ছে, বিয়ে করতে চাইছে। আর এসব ঘটনার পর শ্রীলেখা যদি অল্পবয়সী ছেলের সঙ্গে ছবি দিয়ে বলেন, মাই নিউ পার্টনার…, তাহলে নেটিজেনরা কী বলবেন? অসংখ্য মন্তব্য এসেছে। যেসবে বলা হচ্ছে- নতুন প্রেমিকের জন্য শুভেচ্ছা, অভিনন্দন ইত্যাদি।

এসব করেই হয়তো ভালো আছেন, কেননা কিছুদিন আগেই বাবাকে হারিয়েছেন শ্রীলেখা। বাবাকে হারিয়েছেন সেপ্টেম্বর মাসেই। এখনো যেন বাবার চলে যাওয়াটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না শ্রীলেখা মিত্র। তাঁর ফেসবুক পেইজে চোখ বুলোলেই বোঝা যাবে সে কথা। বাবার ছবি থেকে কথা, নানান স্মৃতি উঠে এসেছে সেখানে। না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেও বাবাকে যেন কিছুতেই কাছছাড়া করতে চাইছেন না এই টলি-অভিনেত্রী । এখনো বাবার সঙ্গে নিজের কথা চালিয়ে যান। রোজ, প্রতিদিন। রোজ বাবার ফোনে ভয়েস রেকর্ড করে পাঠান। ফেসবুকে করা সেই পোস্টে নিজেই এ কথা লিখেছেন শ্রীলেখা।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে যোগ দিতে ইউরোপ গিয়েছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। সেই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁর অভিনীত ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’ ছবির স্ক্রিনিং হওয়ার সুবাদে সেখানে হাজির হয়েছিলেন তিনি। প্রায় এক মাস ইউরোপে ছিলেন শ্রীলেখা। সেই বিদেশ সফর থেকে ফিরেই বাবাকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েছিলেন শ্রীলেখা।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles