14.3 C
Toronto
মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪

আবাসন লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় ৩ কোটি ডলার খোয়াচ্ছে মিসিসোগা

আবাসন লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় ৩ কোটি ডলার খোয়াচ্ছে মিসিসোগা
অন্টারিওর আবাসনমন্ত্রী পল ক্যালান্ড্রা গত ১৪ ফেব্রুয়ারি এক চিঠিতে লেখেন বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যমাত্রার ৮০ শতাংশ পূরণ না করায় মিসিসোগা আর এই তহবিলের যোগ্য নয়

প্রাদেশিক আবাসন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হওয়ায় বিপুল পরিমাণ তহবিল হারাতে যাচ্ছে সিটি অব মিসিসোগা। ২০৩১ সালের মধ্যে ১৫ লাখ বাড়ি নির্মাণের উদ্যোগের অংশ হিসেবে ২০২২ সালে বেশিরভাগ বড় শহরগুলোর জন্য বাড়ি নির্মাণের লক্ষ্য বেঁধে দেয় অন্টারিও সরকার।

প্রত্যেক নগরীকে একটি বার্ষিক লক্ষ্যমাত্রাও দেওয়া হয়। বলা হয়, তারা যদি বাড়ি নির্মাণ শুরুর যে লক্ষ্যমাত্রা তার ৮০ শতাংশ অর্জন করতে পারে তাহলে তারা প্রদেশের তিন বছর মেয়াদী বিল্ডিং ফাস্টার ফান্ড থেকে তহবিলের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে। যেসব নগরী লক্ষ্যমাত্রাকে ছাড়িয়ে যাবে তারা আবার বাড়তি তহবিলের জন্যও যোগ্য হবে। কিন্তু যারা লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হবে তারা কিছুই পাবে না।
অন্টারিওর আবাসনমন্ত্রী পল ক্যালান্ড্রা গত ১৪ ফেব্রুয়ারি এক চিঠিতে লেখেন, বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যমাত্রার ৮০ শতাংশ পূরণ না করায় মিসিসোগা আর এই তহবিলের যোগ্য নয়। আপনাদের প্রতি আমার আহ্বান থাকবে ভবিষ্যতে যোগ্যতা অর্জনের জন্য করুন।

- Advertisement -

মিসিসোগাকে ২০২৩ সালের মধ্যে ৮ হাজার ৮০০ বাড়ি নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দেয়। যখন এই চিঠি দেওয়া হয় তখন মিসিসোগা বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যের মাত্র ৩৯ শতাংশ অর্জন করে। ৩ হাজার ৪৭০টি বাড়ি নির্মিত হচ্ছে। এসব বাড়ির মধ্যে ৩৮৪টি লং-টার্ম কেয়ার হোম।

প্রদেশ যখন মিউনিসিপালিটিগুলোকে তাদের বিল্ডিং ফান্ডিং ফাস্টার কর্মসূচির চেক প্রদান শুরু করে তখন ভারপ্রাপ্ত মেয়র জো হরনেক বলেছিলেন, প্রদেশের সিদ্ধান্ত তাকে হতাশ করেছে। বিশেষ করে আবাসনকে সহজ করতে নগরীর পরিবর্তনগুলোর কথা বিবেচনা করে।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI.

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles