আঞ্চলিক বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট নামার অপেক্ষা

- Advertisement -
পরিবহনমন্ত্রী ওমর আলঘাবরা মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মাঝারি আকারের আটটি সিটি তাদের রানওয়ে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলোর জন্য ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত খুলে রাখতে পারবে

কোভিড-১৯ মহামারি নিয়ন্ত্রণের কৌশল হিসেবে কানাডার আঞ্চলিক বিমাবন্দরগুলোর ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল সরকার। কিন্তু শিগগিরই এসব বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট অবতরণ করবে বলে জানানো হয়েছে।

পরিবহনমন্ত্রী ওমর আলঘাবরা মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মাঝারি আকারের আটটি সিটি তাদের রানওয়ে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলোর জন্য ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত খুলে রাখতে পারবে।

- Advertisement -

এসব বিমানবন্দরের মধ্যে ভিক্টোরিয়া ও সেন্ট জন’স যেমন আছে, একইভাবে আছে অন্টারিওর ওয়াটারলু ও হ্যামিলটন, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার অ্যাবটসফোর্ড ও কেলোনা এবং সাস্কাতুন ও রেজিনা।

ওয়াটারলু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের আলঘাবরা বলেন, আমাদের জন্য এটা খুশির খবর যে, উচ্চ হারে ভ্যাকসিনেশন আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য কানাডার অতিরিক্ত এসব বিমাবন্দর খোলার সুযোগ করে দিচ্ছে। এর ফলে আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীরা এই শীতে আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে আরও বেশি আঞ্চলিক বিমাবন্দর ব্যবহারের সুযোগ পাবেন।

- Advertisement -

আকাশ পরিবহন খাত আঞ্চলিক বিমানবন্দরগুলো আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের জণ্য খুলে দিতে সরকারের প্রতি অনেকদিন ধরেইে দাবি জানিয়ে আসছে। ছুটির মৌসুম সামনে আসায় যুক্তরাষ্ট্র ও ক্যারিবিয়ান গন্তব্যগুলোর কথা বিবেচনায় নিয়ে এ দাবি করে আসছে তারা। দশটি বিমানবন্দর বর্তমানের এ সুবিধা ভোগ করছে। গত ফেব্রুয়ারিতে অটোয়া যখন বিমানবন্দরগুলোর ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করে তখন সুবিধাটি পেত চারটি বিমানবন্দর।

- Advertisement -

গত প্রান্তিকে আকাশপথে অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ ২০১৯ সালের একই সময়ের ৩৭ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। আন্তর্জাতিক যাত্রীদের ক্ষেত্রে এ হার ২০ শতাংশ বলে জানান কানাডিয়ান এয়ারপোর্টস কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ড্যানিয়েল-রবার্ট গুচ।

উল্লেখ্য, ১২ বছর ও তার বেশি বয়সী ৮৪ শতাংশ কানাডিয়ান উভয় ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে উড়োজাহাজ ভ্রমণে আগ্রহী সব কানাডিয়ানকে পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড হতে হবে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles