6.4 C
Toronto
রবিবার, মার্চ ৩, ২০২৪

মোদির সঙ্গে আলিঙ্গন নিয়ে মুখ খুললেন শামি

মোদির সঙ্গে আলিঙ্গন নিয়ে মুখ খুললেন শামি

ভারতীয় খেলোয়াড়দের সান্ত্বনা দিতে ড্রেসিংরুমে ছুটে গিয়েছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মূলত বিশ্বকাপ ফাইনালের হারের পর খেলোয়াড়রা হতাশায় নিমজ্জিত হয়েছিলেন, ঠিক তখনই হাজির হন মোদি।

- Advertisement -

সেখানে গিয়ে রোহিত শর্মা-বিরাট কোহলিদের সঙ্গে কথা বলেন মোদি। পেসার মোহাম্মদ শামির সঙ্গে ১০ সেকেন্ড সময় কাটান তিনি। নাম ধরে ডেকে শামিকে বুকে জড়িয়ে ধরেন। ডান হাত দিয়ে শামির মাথা নিজের বুকে চেপে ধরে বাঁ হাতে তার পিঠ চাপড়াতে থাকেন।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে ভিন্ন রকম আলোচনাই আছে। অনেকেই বলছেন, আগামী নির্বাচনে মুসলমানদের ভোট টানতেই শামির প্রতি বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। শামিকে অবশ্য এই আলোচনা স্পর্শ করেনি। সংবাদমাধ্যমে শামি এ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মোদিকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী সেমিফাইনালের পরও শামির নাম উল্লেখ করে টুইট করেন। সেই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠে ভারত। সেমিফাইনালে ভারতের জয়ে বড় অবদান ছিল পেসার শামির। ভারতের জয়ের পর দলকে অভিনন্দন জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

নরেন্দ্র মোদি এক্স (টুইটার) পোস্টে লেখেন, ব্যক্তিগত কিছু পারফরম্যান্সের কারণে আজকের সেমিফাইনাল আরও বেশি বিশেষ হয়ে উঠেছে। এই ম্যাচ ও এবার বিশ্বকাপে মোহাম্মদ শামির বোলিং কয়েক প্রজন্ম ধরে ক্রিকেটপ্রেমীরা মনে রাখবেন। অনেক ভালো খেলেছে শামি।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই শতক করেছিলেন কোহলি ও শ্রেয়াস আইয়ার। তবে মোদি শুধু তার টুইটে শামির নাম উল্লেখ করেন।

ড্রেসিংরুমে মোদির যাওয়া নিয়ে শামি বলছেন, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ফাইনালে হারের পর যদি প্রধানমন্ত্রী আপনাকে উৎসাহ দেয়, তাতে আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়ে। কারণ হারের পর আপনার মনোবল এমনিতেই তলানিতে থাকে। এটি সত্যিই অন্য রকম।

এবারের বিশ্বকাপে শামি ছিলেন দুর্দান্ত। লিখেছেন প্রত্যাবর্তনের গল্প। ৭ ম্যাচ খেলেই হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক। নিয়েছেন ২৪ উইকেট।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles