24.3 C
Toronto
রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪

কানাডিয়ানদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে চান কিং চার্লস তৃতীয়

কানাডিয়ানদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে চান কিং চার্লস তৃতীয়
কিং চার্লস তৃতীয়র প্রথম কয়েক মাসের কর্মকা বুঝিয়ে দিয়েছে যে রাজা হিসেবে তিনি ভূমিকায় সক্রিয় অংশ নিতে চান

কিং চার্লস তৃতীয়র প্রথম কয়েক মাসের কর্মকা- বুঝিয়ে দিয়েছে যে, রাজা হিসেবে তিনি ভূমিকায় সক্রিয় অংশ নিতে চান। কানাডিয়ান জনগণের সঙ্গেও তিনি সম্পৃক্ত হতে চান। যদিও সন্দিহান কানাডিয়ানদের মন জয় করতে তাকে আরও কিছু করতে হবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

লেখক নাথান টিড্রিজ বলেন, প্রয়াত রানী এলিজাবেথ দ্বিতীয়র চেয়ে চার্লস অনেক বেশি সক্রিয় ও সম্পৃক্ত বলে মনে হচ্ছে।

- Advertisement -

উদাহরণ হিসেবে তিনি মিসরে অনুষ্ঠিত কপ২৭ জলবায়ু সম্মেলনে মূল ভূমিকা পালনকারীদের বাকিংহাম প্যালেসে অভ্যর্থনার সিদ্ধান্তের কথঅ উল্লেখ করেন। সেই সঙ্গে ৬ মে তার অভিষেক অনুষ্ঠানে আদিবাসীদের অন্তর্ভুক্ত করতে অস্ট্রেলিয়ার প্রতি প্যালেসের সরসারি অনুরোধের বিষয়টিও উল্লেখ করেন টিড্রিজ।

টিড্রিজের বিশ্বাস, প্রয়াত রানী এসব বিষয়ে নিজেকে অনেক বেশি দূরে রাখতেন। ওয়াটারডাউন অন্টারিও থেকে এক টেলিফোন সাক্ষাৎকারে টিড্রিজ বলেন, রানী এলিজাবেথের ব্যাপারে একটা দূরবর্তী বিষয় ছিল। কিং চার্লসের ক্ষেত্রে সেটা আমরা দেখছি না। বিভিন্ন পরিমন্ডলে তিনি অনেক বেশি সক্রিয়। বিশেষ করে যেসব পরিম-ল তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে হয়।

ইতিহাসবিদ ক্যারোলিন হ্যারিস বলেন, সব স্তরের মানুষের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য কিং চার্লস কঠোর পরিশ্রম করছেন বলে মনে হচ্ছে। রয়্যাল সোস্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টেও এটা স্পষ্ট। সেখানে কর্মীরা অভিষেকের বিষয়ে জনগণের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন এবং চার্ল ও তার স্ত্রী ক্যামিলার অন্দরমহলের ভিডিও প্রকাশ করছেন। এটা তার দায়িত্বের খুবই শুরুর দিক। আমরা তার ভূমিকাকে সবার জন্য উন্মুক্ত করার একটা চেষ্টা দেখতে পাচ্ছি।
তবে নতুন রাজার ব্যাপারে কানাডিয়ানদের মনোভাব এখনো প্রায় আগের মতোই রয়েছে। লেজার প্রকাশিত মার্চের সমীক্ষা অনুযায়ী, ৬৭ শতাংশ কানাডিয়ান চার্লসের ব্যাপারে তেমন একটা আগ্রহী নন। তারা রাজা হওয়াকে ভালো বলে মন্তব্য করেছেন মাত্র ১২ শতাংশ কানাডিয়ান। রাজার সঙ্গে ব্যক্তিগত সংসক্তি বোধ করছেন বলে জানিয়েছেন সমীক্ষায় অংশ নেওয়া মাত্র ১৩ শতাংশ কানাডিয়ান। এ ছাড়া অর্ধেকের বেশি কানাডিয়ানের মতে, রাজতন্ত্রের সঙ্গে কানাডার সম্পর্ক পুনর্বিবেচনার এখনই সময়।
হ্যারিস বলেন, স্তিতিশীলতার প্রতীক হিসেবে ২০২২ সালের ৮ সেপ্টেম্বর মৃত্যুর দিন পর্যন্ত রানীর সঙ্গে কানাডিয়ানরা সংযুক্ত ছিল। অন্যদিকে ডায়ানার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি নিয়ে চার্লস আগেই বিতর্ক তৈরি করেছেন। অতি সম্প্রতি তার কনিষ্ঠ সন্তানকে ঘিরেও উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles