21.9 C
Toronto
শনিবার, জুন ২২, ২০২৪

থাকার জায়গা পেতে হিমশিম খাচ্ছেন ডলহৌসির শিক্ষার্থীরা

থাকার জায়গা পেতে হিমশিম খাচ্ছেন ডলহৌসির শিক্ষার্থীরা
সাশ্রয়ে থাকার জায়গা পেতে ডালহৌসি ইউনিভার্সিটির কিছু শিক্ষার্থীকে হিমশিম খেতে হচ্ছে

সাশ্রয়ে থাকার জায়গা পেতে ডালহৌসি ইউনিভার্সিটির কিছু শিক্ষার্থীকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তারা বলছেন, তারা যেসব বাড়িতে ভাড়া থাকেন সেগুলোর মালিকরা বেশি মূল্যে ভাড়া দেওয়ার জন্য তাদেরকে বিতাড়িত করছেন। এ সমস্যার সমাধান করা সত্যিই কঠিন। কারণ, এর মধ্যে আইনের কোনো ব্যত্যয় নেই।

নাতালিয়া বোয়াদা নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, বাড়ির মালিকরা যা করতে চান লোকজন তাদেরকে তা-ই করতে দেওয়ার সুযোগ দিচ্ছে। লোকজন তাদেরকে আরও বেশি ধনি হওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে। আমাদের জন্য কিছুই অবশিষ্ট থাকছে না।

- Advertisement -

২০২১ সাল থেকে অক্সফোর্ড স্ট্রিটের দ্য কমডোরে বসবাস করে আসছেন তিনি। কিন্তু নির্ধারিত ভাড়ার চুক্তি পুনরায় স্বাক্ষর করতে পারছেন না তিনি ও অন্য ভাড়াটিয়ারা। বোয়াদা বলেন, শিক্ষাজীবন শেষ হওয়ার পর হ্যালিফ্যাক্সে আমি থাকতে পারবো বলে মনে হয় না।
নোভা স্কশিয়ায় নির্ধারিত অপরির্তীত মূল্যের ভাড়াচুক্তি নবায়নের বাধ্যবাধকতা নেই বাড়ির মালিকদের। দুই শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধির নিয়ম থেকে বেরিয়ে এসে তারা বেমি ভাড়ায় নতুন ভাড়াটিয়াদের কাছে তা ভাড়া দিতে পারেন।

ডারিয়া ওয়ানেস বলেন, তার ভাড়াচুক্তি আর নবায়ন করা হবে না বলে জানতে পেরেছি। মাসিক ২০০ ডলারে তার বাসাটি ভাড়া দেওয়ার জন্য বিজ্ঞাপনও দেওয়া হয়েছে। আমি আমার মিক্ষাজীবন শেষ করতে যাচ্ছি এবং এই সময়ে সাশ্রয়ী বাড়ি খুব দরকার। কিন্তু সেটা নিশ্চিত করা এখন কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ডালহৌসি ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তিনি।
সার্ভিস নোভা স্কশিয়ায় একজন মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাড়ির মালিকদের এটা করাটা দুঃখজনক। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও কিছু বাড়ির মালিক এটা করছেন।

বাড়ির প্রাপ্যতা বাড়ানোই এ সমস্যার একমাত্র সমাধান বলে মন্তব্য করেছেন অ্যাফোর্ডেবল হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব নোভা স্কশিয়ার নির্বাহী পরিচালক মাইকেল কাবালেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles