6.6 C
Toronto
বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

স্বাস্থ্যসেবা পরিকল্পনা পুনর্বিবেচনা করতে ট্রুডোর প্রতি ফোর্ডের আহ্বান

স্বাস্থ্যসেবা পরিকল্পনা পুনর্বিবেচনা করতে ট্রুডোর প্রতি ফোর্ডের আহ্বান
প্রদেশের পরবর্তী দ্বিপক্ষীয় চুক্তিতে ফেডারেল স্বাস্থ্যসেবার আনুষ্ঠানিক পর্র্যালোচনা অন্তর্ভুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড

প্রদেশের পরবর্তী দ্বিপক্ষীয় চুক্তিতে ফেডারেল স্বাস্থ্যসেবার আনুষ্ঠানিক পর্র্যালোচনা অন্তর্ভুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড। তিনি বলেন, এটা কিছুটা হলেও নিশ্চয়তা ও দীর্ঘমেয়য়াদি টেকসই অবস্থা নিশ্চিত করবে।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বুধবার পাঠানো এক চিঠিতে এই অনুরোধ করেছেন ডগ ফোর্ড। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার প্রিমিয়ারের কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমের সামনে চিঠিটি প্রকাশ করা হয়।

- Advertisement -

চিঠিতে বলা হয়েছে, অটোয়ার ফার্স্ট মিনিস্টারদের বৈঠকে এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং অন্টারিও চায়, আমাদের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থার উন্নয়নে চলমান কার্যক্রমে ফেডারেল হেলথ কেয়ার ফান্ডিং সহায়তা করার মধ্য দিয়ে এটিতে টেকসই ও সুনিশ্চিত করুক। বর্তমানে ও ভবিষ্যতের চাহিদা পূরণে যাতে আমাদের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা সক্ষম হয় সেটা নিশ্চিতে শিগগিরই আমরা একটা চুক্তিতে পৌঁছাতে পারবো বলে আমি আশাবাদী।

ফেডারেল সরকারের দশ বছরের তহবিল প্রস্তাব মেনে নিয়েছেন কানাডার প্রিমিয়াররা। তা সত্ত্বেও প্রত্যেক প্রিমিয়ারকে দ্বিপক্ষীয়ি চুক্তি করতে হবে, যেখানে বাড়তি তহবিলের জন্য স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতির বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

নতুন চুক্তির অংশ হিসেবে আগামী এক দশকে কানাডা হেলথ ট্রান্সফারের মাধ্যমে প্রদেশগুলোর কাছে ফেডারেল সরকারের তরফ থেকে ১৯ হাজার ৬১০ কোটি ডলার যাবে। এছাড়া দ্বিপক্ষীয় চুক্তির মাধ্যমে আরও ২ হাজার ৫০০ কোটি ডলার জোগান দেওয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ফেডারেল সরকার চাইছে এই অর্থের কিছু মানসিক স্বাস্থ্যসেবা, অস্ত্রোপচারের স্তুপ কমানো এবং স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত তথ্যভান্ডার প্রতিষ্ঠায় ব্যয় হোক। প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড প্রকাশ্যেই বলেছেন, হোমকেয়ার ও লং-টার্ম কেয়ারের জন্য দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়ন প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে তিনি ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে আরও তহবিল প্রত্যাশা করছেন।

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে ফোর্ড প্রদেশের বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় চুক্তির পর্যালোচনা চেয়েছেন। ২০২৭ সালের ৩১ মার্চ এই চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles