10.6 C
Toronto
শনিবার, অক্টোবর ১৬, ২০২১

কানাডায় নতুন কর্মপরিকল্পনা শুরু

কানাডার বিভিন্ন প্রদেশের প্রিমিয়ার এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জুলাই মাস থেকে নতুন কর্মপরিকল্পনা শুরু করেছে। কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশের অন্যতম প্রদেশ আলবার্টার প্রিমিয়ার জেসন কেনি এক ঘোষণায় বলেছেন, আলবার্টা ১ জুলাই পুনরায় খোলার পরিকল্পনার তৃতীয় পর্যায়ে চলে যাবে, যার অর্থ প্রায় সমস্ত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেয়া হবে।

ঘরে সামাজিক জমায়েতগুলোকে আবার অনুমতি দেয়া হবে এবং বাইরের ইভেন্টে আকারের কোনো সীমা থাকবে না। রেস্তোরাঁ, বার এবং খুচরা আউটলেটগুলো আবারও পুরো ক্ষমতা নিয়ে চালাতে সক্ষম হবে। প্রাদেশিক মাস্কের আদেশও তুলে নেয়া হবে তবে জনসাধারণের যাতায়াতে পাবলিক ট্রানজিট এবং শহর-মালিকানাধীন ভবনের অভ্যন্তরে কিছু সেটিংসে এখনো মাস্কের প্রয়োজন হবে। তবে কেউ কোভিড পজিটিভ হলে তাকে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

আলবার্টার প্রিমিয়ার জেসন কেনি বলেন, এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক এবং একটি দুর্দান্ত অর্জন, তবে আমরা এখানেই থামব না। তিনি আরো বলেন, আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেব; যাতে আমরা কেবল গ্রীষ্মের জন্যই উন্মুক্ত নই, ভালোর জন্য উন্মুক্ত থাকব।

অন্যদিকে কাউকে কানাডায় ঢুকতে হলে তাকে অবশ্যই পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড হওয়ার সপক্ষে প্রমাণপত্র প্রদর্শন করতে হবে। সেই ভ্যাকসিনও হতে হবে কানাডায় অনুমোদিত। কানাডা এখন পর্যন্ত চারটি ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে। এগুলো হলো অ্যাস্ট্রাজেনেকা, জনসন অ্যান্ড জনসন, ফাইজার ও মডার্না। এ ব্যবস্থা চালুর সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ সরকার ঘোষণা না করলেও জুলাইয়ের শুরুর দিকে এটি চালু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আন্তঃসরকার বিষয়ক মন্ত্রী ডমিনিক লাব্লাঁ বলেন, ব্যবস্থাটি চালুর দিনক্ষণ নির্ভর করছে দেশে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ হার কী দাঁড়ায় তার ওপর। পূর্ণাঙ্গভাবে ভ্যাকসিনেটেড বা ভ্যাকসিন পাসপোর্ট নিয়ে সরকার প্রদেশগুলো ও বর্ডার সার্ভিসেস এজেন্সির সঙ্গে কাজ করছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এ ব্যাপারে বিস্তারিত নথি প্রকাশ করা হতে পারে।

হোটেল কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থায় পরিবর্তন হলে অনুমোদিত হোটেলে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন ছাড়াই কানাডায় প্রবেশের সুযোগ পাবেন যাত্রীরা। ফেডারেল কর্মকর্তারা বুধবার এই ঘোষণা দিয়েছেন। তবে কারা কানাডায় প্রবেশ করতে পারবেন সেই নিয়মে সরকার পরিবর্তন আনছে না বলে জানিয়েছেন ফেডারেল স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্যাটি হাইডু। তবে যারা কানাডার প্রবেশের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন তারা খুব সহজেই আসতে পারবেন বলে জানান তিনি।

প্যাটি হাইডু বলেন, এখানে পার্থক্য যেটা তা হলো, ভ্যাকসিনের কোর্স সম্পন্ন করেছেন এমন যাত্রীদের সরকার নির্ধারিত হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। প্রবেশের প্রথম দিনই করা পরীক্ষার নেগেটিভ ফলাফল না পাওয়া পর্যন্ত বাড়িতেই কোয়ারেন্টিনে থাকার সুযোগ পাবেন তারা।

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles