15.6 C
Toronto
শনিবার, মে ২৮, ২০২২

মৎস্যচাষিকে বাড়িতে ডেকে নেন ‘প্রেমিকা’, স্বামীকে নিয়ে করলেন খুন

- Advertisement -
মৎস্যচাষিকে বাড়িতে ডেকে নেন ‘প্রেমিকা’, স্বামীকে নিয়ে করলেন খুন - The Bengali Times
রতন সরকার

নওগাঁর রানীনগরে রতন সরকার (৪৫) নামে এক মৎস্যচাষিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার মধ্যরাতে উপজেলার বড়গাছা ইউনিয়নের দেউলা মানিকহারা গ্রামে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। নিহত রতন সরকার ওই গ্রামের মৃত রবীন্দ্রনাথ সরকারের ছেলে।

পূর্বশত্রুতার জের ধরে ও অনৈতিক সম্পর্কের সন্দেহে তাকে ধারালো হাঁসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। এই ঘটনায় রতন সরকারের প্রেমিকা (৪২) ও তার স্বামী সুশীল কুমার সরকারকে (৪৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত হাঁসুয়াটি জব্দ করা হয়েছে।

- Advertisement -

জানা গেছে, রতন সরকার দেউলা মানিকহার গ্রামে তার নিজের ও লিজ নেওয়া দুটি পুকুরে মাছ চাষ করতেন। প্রতিদিনের মতো শনিবার রাত ১১টার দিকে তিনি পুকুর দেখাশোনা করতে যান। মধ্যরাতে পরিবারের লোকজন জানতে পারে বাড়ির কিছু দূরে সুশীল কুমার সরকারের বাড়ির কাছে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে রতন সরকার। এ সময় পরিবারের লোকজন তাকে রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রানীনগর উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কে এইচ এম ইফতেখারুল আলম খান বলেন, রতনকে হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা গেছেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

নিহতের ছোট ভাই অসিত কুমার সরকার বলেন, আমার ভাইকে অনৈতিক সম্পর্কের সন্দেহে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমার এর ন্যায়বিচার চাই। জড়িতদের ফাঁসি চাই।

নিহতের স্ত্রী অঞ্জনা রানী সরকার বলেন, আমার স্বামী একজন হার্টের রোগী। তার চিকিৎসা চলছে। অনৈতিক সম্পর্কের মিথ্যা অজুহাত দিয়ে তাকে হত্যা করে একদিকে আমাকে বিধবা করা হয়েছে, অন্যদিকে আমার ৫ ও ৭ বছরের দুই সন্তানকে এতিম করে দিল। আমি নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

রানীনগর থানার ওসি শাহিন আকন্দ আরও জানান, সুশীল কুমার সরকারের স্ত্রীর সঙ্গে নিহত রতন সরকারের অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। এ বিষয় নিয়ে গ্রামে একাধিকবার বিচার-সালিশ হয়। ঘটনার রাতে ওই প্রেমিকা শনিবার রাতে রতন সরকারকে ডেকে নিয়ে যায় তার বাড়িতে।

এ সময় পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ওই প্রেমিকা ও তার স্বামী সুশীল কুমার সরকার অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যার পর তাদের বাড়ির বাইরে লাশ ফেলে রেখে যায়। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা এ কথা স্বীকার করেছেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles