10.6 C
Toronto
শনিবার, অক্টোবর ১৬, ২০২১

হ্যারি ও মেগানের প্রতি সহানুভূতি জানিয়েছে ৫৯ শতাংশ কানাডিয়ান

প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেল…ছবি/ফাইল

অপরাহ উইনফ্রেকে দেওয়া প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলের বিস্ফোরক সাক্ষাৎকারের পর পরিচালিত নতুন এক জরিপে দেখা গেছে অর্ধেক কানাডিয়ান মনে করছেন,২১ শতকের কানাডায় ব্রিটিশ রাজতন্ত্রের কোনো স্থান নেই। তবে এক-তৃতীয়াংশ কানাডিয়ান ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে একে রেখে দিতে চান।ব্র্রিটিশ রাজতন্ত্র ভগ্নদশায় পৌঁছে গেছে বলে বিশ্বাস করেন তারা।সেই সঙ্গে কানাডার এটা পরিত্যাগ করা উচিত বলেও মনে করেন তারা।লেজার অ্যান্ড দ্য অ্যাসোসিয়েশন ফর কানাডিয়ান স্টাডিজ পরিচালিত অনলাইন জরিপে অংশগ্রহণকারী ৫৯ শতাংশ কানাডিয়ান হ্যারি ও মেগানের প্রতি সহানুভূতি ব্যক্ত করেছেন। তবে রাজ পরিবারের প্রতি বেশি সহানুভূতিশীল ২৬ শতাংশ কানাডিয়ান। লেজারের নির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিন বোর্ক বলেন, কানাডিয়ানদের এ মনোভাব ব্রিটিশ রাজতন্ত্র এবং কানাডায় এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে বলে যারা মনে করেন তাদের ওপর বড়সড় আঘাত। দুই সপ্তাহ আগেও ব্রিটিশ রাজতন্ত্রের প্রতি কানাডিয়ানদের এমন মনোভাব ছিল না বলে আমার ধারণা।

১২ থেকে ১৪ মার্চ পর্যন্ত ১ হাজার ৫১২ জন প্রাপ্ত বয়স্ক কানাডিয়ানের ওপর অনলাইনে জরিপটি চালানো হয়। জরিপে অংশ নেওয়া ৫২ শতাংশ কানাডিয়ানের ধারণা, এই দম্পতিকে ঘিরে সম্প্রতি যা ঘটেছে তা রাজপরিবারের মৌলিক সমস্যা। রাজপরিবার বর্ণবাদী মনোভাব পোষণ করে বলে মনে করেন ৪৩ শতাংশ কানাডিয়ান।

এর আগে ৫ থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি ২ হাজার ১২২ জন প্রাপ্ত বয়স্ক কানাডিয়ানের ওপর একই ধরনের জরিপ চালানো হয়েছিল। ওই জরিপে ব্রিটিশ রাজতন্ত্রকে সেকেলে বলে মন্তব্য করেছিলেন ৪৬ শতাংশ কানাডিয়ান। এ হিসাবে বলা যায়, অপরাহ উইনফ্রের সঙ্গে হ্যারি ও মেগানের সাক্ষাৎকারের পর কানাডিয়ানদের মধ্যে ব্রিটিশ রাজতন্ত্র সম্পর্কে নেতিবাচক মনোভাব কিছুটা বেড়েছে।

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles