4.9 C
Toronto
মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

সংবিধান তাদের সেই অধিকার দেয়নি

সম্প্রতি গ্রেফতার হয়েছেন ঢাকাই নায়িকা পরীমণি

কেউ অপরাধ সংঘটন করলে বা সংশ্লিষ্ট হলে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে আদালতের নির্দেশে গ্রেফতার করা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নামে রঙ বে-রঙের পোষাকে কাউকে গ্রেফতার করতে যাওয়া কতটা বিধিসম্মত? গ্রেফতার অভিযানের সময় তাদের গায়ে সরকার প্রদত্ত পোষাক থাকবে না কেন?

মানুষ কিভাবে বুঝবে এরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য? নাকি অপরহনকারী?

নামধামবিহীন এই পোষাকধারীদের দেখে কেউ যদি আত্মরক্ষার্থে ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার দিয়ে মানুষ জড়ো করে, সেটা কি অপরাধের পর্যায় পড়বে?

নিশ্চয় না।

এরা অভিযানের সময় মানুষের সাথে যে দুর্বব্যহার করে সেটা কতটা আইনসিদ্ধ?

আটকের নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে কারো সাথে খারাপ ব্যবহার করতে পারে না। আইন, সংবিধান তাদের সেই অধিকার দেয়নি। এমন কি খোদ পুলিশের আচরনবিধিতেও সেটা নেই।

চয়নিকা চৌধুরী দীর্ঘ সময় ধরে নাটকের পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন৷ তাকে আটকের সময় দুর্বব্যহার করা হলো, জিজ্ঞাসাবাদের নামে কিডন্যাপের ঢংএ উঠিয়ে নেওয়া হলো, এসব আচরণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি মানুষের আস্থা কমবে এবং ভীতি ছড়াবে। পুলিশ যদি জনগনের বন্ধু হয়, তাহলে এই চর্চা কেন?

চয়নিকা চৌধুরি কেন, রাষ্ট্রের যে কোনো নাগরিকের সাথে এমন আচরন করা অন্যায়৷

মন্ট্রিয়ল, কানাডা

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles