4.2 C
Toronto
শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১

বিকল্প পথে কানাডায় প্রবেশের চেষ্টা আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের

পাঁচটি ফ্লাইট এরই মধ্যে বাতিল হয়ে গেছে

ভারতের সঙ্গে সরাসরি ফ্লাইট বন্ধে বিপাকে পড়েছে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীরা। বিশেষ করে কানাডায় আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের প্রধান উৎস ভারত। ভারতের সঙ্গে কানাডার সরাসরি ফ্লাইট বন্ধের সময়সীমা বাড়ায় বিকল্প পথে দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করছেন যেসব আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী, সচীন দেব তাদের একজন। নতুন সেমিস্টার শুরুর আগেই মন্ট্রিয়লে পৌঁছতে চাইছেন তিনি।

ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির এই পিএইচডি শিক্ষার্থী ঘুরপথে কানাডায় প্রবেশের আগে অন্য কোনো দেশে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করাতে চান। কিন্তু পাঁচটি ফ্লাইট এরই মধ্যে বাতিল হয়ে গেছে এবং এর প্রভাব পড়েছে পরিবারের আর্থিক অবস্থায়।

দ্য কানাডিয়ান প্রেসকে ২৭ বছর বয়সী সচীন দেব দিল্লি থেকে বলেন, আমার মনে হচ্ছে আমি পিছিয়ে পড়েছি। তৃতীয় কোনো দেশ হয়ে টিকিট কাটলে কেবল যে পাঁচ থেকে ছয়গুণ বেশি খরচ পড়ছে তাই নয়, এতে সংক্রমণের ঝুঁকিও থাকে। ইউনিভার্সিটির স্টাইপেন্ড না পাওয়ায় আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে আমাকে। কারণ, স্টাইপেন্ড পেতে হলে বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর কানাডার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ও শিক্ষা অনুমতির প্রয়োজন হয়।

সচীন দেব বলেন, একাধিকবার কানাডার ফ্লাইট বন্ধ ও ভারতীয় পাসপোর্টধারীদের অন্যান্য দেশে কোয়ারেন্টিনের কারণে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট আমাকে বাতিল করতে হয়েছে। আরব আমিরাত ও সার্বিয়াতে যাত্রা বিরতি দিয়ে বিকল্প রুট হয়ে টিকিট বুকিংয়ের চেষ্টা করছেন তিনি।

ভারতে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় ২২ এপ্রিল দেশটির সঙ্গে সরাসারি ফ্লাইট বাতিল করে কানাডা। চলতি মাসে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরেক দফা বাড়ানো হয়েছে।

সচীনের মতো সায়ানা শেরিফকেও কানাডায় প্রবেশের আগে মহামারির কারণে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল বা স্থগিত করতে হয়েছে। গৌরব কামাথ নামে আরেক ভারতীয় শিক্ষার্থী বলেন, আন্তর্জাতিক যেসব শিক্ষার্থী কানাডায় পোস্ট-সেকেন্ডারি শিক্ষা নিশ্চিতের পরিকল্পনা করছেন ফ্লাইট বন্ধ তাদের ওপর মারাত্মক চাপ তৈরি করছে। ভারতীয় শিক্ষার্থীদের মধ্যে এখন সত্যিকার অর্থেই হতাশা বিরাজ করছে।

- Advertisement - Visit the MDN site

Related Articles

- Advertisement - Visit the MDN site

Latest Articles