7.8 C
Toronto
বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

টরন্টো যাবো

টরন্টো যাবো

বেশ কয়েক বছর আগে অটোয়া থেকে টরন্টো আসছিলাম বিকালের ট্রেনে। অটোয়া ষ্টেশনে ট্রেনে উঠে ইন্জিন এর পেছনের কামরাতে বসেছি। ট্রেন চালুর পরেই লক্ষ করলাম একজন লোক আমাদের কামরায় এসে আমাদেরকে মনোযোগ সহকারে দেখছেন। আমরা ৭/৮ জন যাত্রী সে কামরায়। সে আমার কাছে এসে জানতে চাইলো
-তুমি কোথায় যাবে?
-টরন্টো।

- Advertisement -

কোন প্রসংগ না নিয়ে এবার সে বললো
-তুমি একটা কাজ করতে পারবে?
কি কাজ?
-ইন্জিনের পিছনে একটা ইমারজেন্সি দরজা আছে ওটি কেমন করে খুলতে হবে তা দেখিয়ে দেব, তুমি খুলতে পারবে?
-কেন?
-ধরো যদি কোন দূর্ঘটনা ঘটে।
আমি আতকে উঠলাম
-বলে কি?
-ভয় নেই সে রকম কিছু ঘটবে না শুধু সতর্কতা।

কৌতুহল ছিলো ইমারজেন্সি দরজাটি দেখার আমি রাজী হলাম সে আমাকে দেখিয়ে দিলো।
আমার সিটে এসে বসলাম। সে অভয় দিলো এবং বললো
-এমনটি কখনো হয়না।

এটা হলো সতর্কতা। যেখানে হররোজ ইমারজেন্সি হয় সেখানে কি সতর্কতা নেয়া হয় প্রাতিষ্ঠানিকভাবে? এর উত্তর খুব কম স্থান থেকে পাওয়া যাবে।
সেদিন দুপরে অফিসে অনলাইন নিউজে দেখলাম ঢাকার বেইলী রোডের আগুনের খবর। বাংলাদেশে তখন মাঝরাত। সাধারণত কোন খবর বাংলাদেশের অধিবাসীরা সকালে পেপারে দেখার ১২ ঘন্টা আগেই আমরা দেখতে পাই। এর পর ইউ টিউবে আসতে থাকে ভুরি ভুরি সংবাদ।

যে দুর্যোগে মানুষের মৃত্যু হয় বাংলাদেশে তার বেশীর ভাগই মনুষ্য সৃষ্ট। এগুলো রোধ করা কঠিন নয়।

ইনুভিক, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles