14.3 C
Toronto
মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪

বিশ্বের যা কিছু মহান

বিশ্বের যা কিছু মহান

বিশ্বের যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণ কর
অর্ধেক তার করিয়াছে নারি অর্ধেক তার নর।
আজ ৮ই মার্চ। আন্তর্জাতিক নারী দিবস। নারীদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের দিন ।
বিশ্বের সকল নারীরা যে যেখানে আছেন আপনারা ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন।
আপনাদের সবার প্রতি আমাদের আন্তরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা ।

- Advertisement -

আমি একজন নারী এ আমার অহংকার। আমি একজন মা, আমি একজন স্ত্রী, আমি একজন বোন , আমি একজন কন্যা। অর্ধেকটা পৃথিবী আমাদের, অর্ধেকটা আকাশও আমাদের। তাই বলে আমাদের কোন শত্রুতা নেই পুরুষ সমাজের সাথে। কারন তারাও কেউ আমাদের ভাই, কেউ আমাদের বাবা, কেউ আমাদের বন্ধু, কেউ আমাদের স্বামী। আমরা চলতে চাই পুরুষের সাথে সমান অধিকার নিয়ে পায়ে পা চালিয়ে , হাতে হাত মিলিয়ে। যেখানে সবাই ভাবতে শিখবে আমরা সবাই মানুষ ।

পৃথিবী এগিয়ে চলেছে আলোর গতিতে। কিন্তু তার সাথে আমরা নারীরা কতটুকু এগুতে পেরেছি? এটা সত্যি নারীরা এখন নানা ধরনের কাজ করছেন অর্থ উপার্জন করছেন, বড় বড় পদে নিয়োজিত আছেন, তাদের চিত্র অবশ্য আলাদা। তারপরও বলতে হবে সে সব শিক্ষিত , সচ্ছল ও যোগ্য নারীরাও কি পাচ্ছে তাদের প্রাপ্য অধিকার তাদের নিজেদের ঘরে বা কর্ম ক্ষেত্রে ? তাদের দাবিয়ে রাখার ধরনটা অন্য রকম।

কিন্তু প্রান্তিক নারীরা, আর্থিক ভাবে অসচ্ছল, শিক্ষা বঞ্চিত নারীরা ?তারা প্রতিনিয়ত লাঞ্ছিত হচ্ছে, অবহেলিত হচ্ছে নির্যাতিত হচ্ছে। দরিদ্র সহায় সম্বল হীন নারীদের নেই কোন জীবনের নিরাপত্তা, নেই তাদের শারীরিক নিরাপত্তা, নিজের সন্মান রক্ষা করার ক্ষমতা , তারা বড় বেশী অসহায় ও নিরাপত্তা হীন। নারীদের মুক্তির আলো এখনো তাদের সামনে এসে দাঁড়ায় নি। তাদের দ্বারে কড়া নারেনি। স্বল্প পারিশ্রমিকে তারা করে যাচ্ছে নানা রকমের পরিশ্রমের কাজ শুধু সংসারে সামান্য ভাত কাপড়ের জন্য । সেখানেও তারা হচ্ছে নানা ভাবে লাঞ্ছিত, অবহেলিত
আমারা যতই ভেবে থাকি নারীরা আজ অনেকটাই মুক্ত। সত্যিই কি তারা মুক্ত? নারীরা কি এখনো বলতে পেরেছে, আমরা এখন মুক্ত- সমস্থ নির্যাতন , অবহেলা, পুরুষ নারীর বৈষম্য থেকে। আমরা নারীরা এগিয়ে যেতে চাই- আমাদের আদর্শ নিয়ে, আমদের যোগ্যতা নিয়ে, মানসিক শক্তি নিয়ে। আমরা সর্ব ক্ষেত্রে চাই সমান অধিকার।
বাংলাদেশের নারীদের দিকে যখন তাকাই আমার মনে হয় বেশ কিছু সংখ্যক নারীরা , মেয়েরা, আলোর দিকে মুখ ঘুরিয়ে আন্ধকার যুগকে গ্রহন করতে বেশী আগ্রহী ।

আমাদের দায়িত্ব অন্ধকারে বাস করা, নানা যন্ত্রণা কষ্টে, নির্যাতনে থাকা নারীদের মুক্তির আলো দেখানো । তাদের সাহায্যে আমাদের এগিয়ে আসা । আন্তর্জাতিক নারী দিবসে এটাই আমাদের প্রত্যাশা হওয়া উচিৎ ।
নারী শোনো এই আকাশ তোমার , এই বাতাশ তোমার নদী তোমার , সাগর তোমার এই মাটী তোমার ।
নারী তুমি মনে রেখো । জীবন একটাই । তোমার জীবনকে তুমি ভালবাসতে শেখো। তোমার জীবনকে তুমি সুন্দর করে তুলো নিজের চেষ্টায় । মেরুদণ্ড সোজা করে দাঁড়াতে শেখো । তোমার নিজের সন্মান তোমার নিজেকেই রক্ষা করতে হবে। নিজের ভেতর আত্ম সন্মান বোধ জাগ্রত করো ।ব্যক্তিত্বের বেড়াজালে নিজেকে জড়িয়ে রাখো । কেউ যেন তা টোপকে তোমার কাছে না আসতে পারে। মনে রেখো তুমি শুধু একজন নারী নও। পৃথিবীর লক্ষ লক্ষ কোটি মানুষের মাঝে তুমিও একজন মানুষ ।
ম্যাল্টন, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles