20.9 C
Toronto
বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪

যেসব শহরে বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি কমেছে

যেসব শহরে বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি কমেছে
কানাডায় বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি কমেছে কিচেনার ওয়াটারলু এরিয়াতে তবে পিছিয়ে নেই টরন্টোও

কানাডায় বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি কমেছে কিচেনার-ওয়াটারলু এরিয়াতে। তবে পিছিয়ে নেই টরন্টোও। আবাসন প্রতিষ্ঠান জুকাসার নতুন এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

কানাডার ২১টি বড় আবাসন বাজার নিয়ে কানাডিয়ান রিয়েল এস্টেট অ্যাসোসিয়েশনের (সিআরইএ) বেঞ্চমার্ক মূল্য উপাত্তের তুলনামূলক বিশ্লেষণ ৮ জানুয়ারি প্রকাশ করেছে জুকাসা। এই বিশ্লেষণে উঠে এসেছে গত জুন থেকে কোথায় বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি হ্রাস পেয়েছে। জুনে জাতীয়ভাবে বাড়ির দাম বেড়ে সবচেয়ে বেশি হয়, যার পরিমাণ ৭ লাখ ৬০ হাজার ৬০০ ডলার।

- Advertisement -

এই তালিকায় স্থান করে নিয়েছে দক্ষিণ অন্টারিওর বেশ কিছু শহর। এর মধ্যে আছে গ্রেটার টরন্টো এরিয়া (জিটিএ), নায়াগ্রা অঞ্চল, হ্যামিল্টন, বার্লিংটন, লন্ডন, কিচেনার এবং ওয়াটারলু। জুলাইয়ের পর জাতীয়ভাবে বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি ৮ দশমিক ৯ শতমাংশ হ্রাস পেয়েছে কিচেনার-ওয়াটারলুকেত। গত নভেম্বরে এই অঞ্চলে বাড়ির দাম কমে দাঁড়ায় ৭ লাখ ৮ হাজার ৬০০ ডলারে। গত বছরের তুলনায় অঞ্চলটিতে বাড়ির দাম কমেছে দশমিক ৬ শতাংশ।

জিটিএতে জুনের পর থেকে বাড়ির দাম ৭ দশমিক ৭ শতাংশ কমে বেঞ্চমার্ক মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৮১ হাজার ৩০০ ডলারে। এক বছর আগের তুলনায় অঞ্চলটিতে বাড়ির দাম কমেছে দশমিক ১ শতাংশ।
লন্ডন, সেন্ট থমাস, হ্যামিল্টন এবং বার্লিংটনেও জুনের পর বেঞ্চমার্ক মূল্য ৭ শতাংশের বেশি হ্রাস পেয়েছে। তবে গুয়েল্ফে বাড়ির দাম কমেছে ৬ দশমিক ৬ শতাংশ। এ ছাড়া নায়াগ্রা অঞ্চলে জুনের পর থেকে বাড়ির দাম প্রায় ৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৩৫ হাজার ৪০০ ডলারে।
অন্টারিওর এসব আবাসন বাজারে চাহিদায় নি¤œমুখী প্রবণতা বাড়ির দাম মহামারি-পূর্ব অবস্থার কাছাকাছি স্থিতিশীলতা আনতে সক্ষম হয়েছে।

একক বাড়ির বেঞ্চমার্ক মূল্য সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হ্রাস পেয়েছে অন্টারিওর ছয়টি শহরে। কিচেনার-ওয়াটারলুতে ২০২৩ সালের জুন থেকে একক পরিবারের বাড়ির দাম সবচেয়ে বেশি ৯ দশমিক ৭ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ৮ লাখ ২ হাজার ৯০০ ডলারে দাঁড়িয়েছে। বার্লিংটন এবং হ্যামিল্টনে একই ধরনের বাড়ির দাম ৮ দশমিক ৫ শতাংশ হ্রাস পেয়ে নভেম্বরে ৮ লাখ ৬৪ হাজার ২০০ ডলারে দাঁড়িয়েছে। গ্রেটার টরন্টো এরিয়াতেও একক পরিবারের বাড়ির দাম ৭ দশমিক ৮ শতাংশ কমে দুই মাস আগে ১২ লাখ ৯০ হাজার ডলারে দাঁড়ায়।

তবে কন্ডোমিনিয়ামের দাম অতটা কমেনি বলে জানিয়েছে আবাসন প্রতিষ্ঠানটি। এর কারণ হিসেবে সুদের হার বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতাদের কাছে সাশ্রয়ী বাড়ির চাহিদা হ্রাস পাওয়াকে কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে জিটিএ, কিচেনার-ওয়াটারলু এবং লন্ডন ও সেন্ট থমাসে কন্ডোর দাম জুনের পর থেকে ৪ শতাংশের বেশি হ্রাস পেয়েছে। এর মধ্যে ২০২২ সালের পর থেকে কানাডাজুড়ে কন্ডোর দাম সবচেয়ে বেশি হ্রাস পেয়েছে কিচেনার-ওয়াটারলুতে ৫ দশমিক ২ শতাংশ।

সব ধরনের বাড়ি বিবেচনায় জিটিএতে বাড়ির দাম সর্বোচ্চে ওঠে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ১৩ লাক ৩৪ হাজার ৬২ ডলারে। এটা ছিল ব্যাংক অব কানাডার সুদের হার বৃদ্ধির আগের বাজার পরিস্থিতি। বার্ষিক মূল্য শেষ পর্যন্ত ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৫৪২ ডলারে নেমে আসে। তবে ফিক্সড মর্টগেজের সুদের হার সাময়িকভাবে হ্রাস পাওয়ায় বাড়ির দাম আবার ঘুরে দাঁড়ায়।

আরবিসি গত মাসের তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, অন্টারিওর আবাসন বাজার ২০২৪ সালজুড়ে মন্থর থাকতে পারে। এর ফলে অধিকাংশ বাজারেই চালকের আসনে থাকবেন ক্রেতারা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles