20.9 C
Toronto
শনিবার, জুন ২২, ২০২৪

একক পরিবারের বাড়ি ক্রয়ের মতো আয় আছে এক-চতুর্থাংশের কম পরিবারের

একক পরিবারের বাড়ি ক্রয়ের মতো আয় আছে এক-চতুর্থাংশের কম পরিবারের
আরবিসির অর্থনীতিবিদ রবার্ট হগের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে আকাশচুম্বি দাম ও ব্যয়বহুল ঋণের মধ্যে প্রদেশে কন্ডোমিনিয়াম ক্রয়ের মতো সামর্থ্য রয়েছে ৫০ শতাংশেরও কম অন্টারিও পরিবারের

একটি একক পরিবারের বাড়ি ক্রয়ের মতো প্রকৃত আয় আছে অন্টারিওর এক-চতুর্থাংশেরও কম পরিবারের। ক্রয়ক্ষমতা এখন এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে, যা আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে খারাপ। আরবিসির নতুন এক প্রতিবেদনে এমনটাই বলা হয়েছে।

আরবিসির অর্থনীতিবিদ রবার্ট হগের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আকাশচুম্বি দাম ও ব্যয়বহুল ঋণের মধ্যে প্রদেশে কন্ডোমিনিয়াম ক্রয়ের মতো সামর্থ্য রয়েছে ৫০ শতাংশেরও কম অন্টারিও পরিবারের। তবে একক পরিবারিক বাড়ি ক্রয়ের জন্য প্রয়োজনীয় আয়ের যে চিত্র প্রতিবেদনে আঁকা হয়েছে তা আরও ভয়াবহ।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অন্টারিওর মাত্র ২২ শতাংশ পরিবারের এমন আয় আছে, যা দিয়ে একটি একক পরিবারের উপযোগী বাড়ি কেনা সম্ভব। জাতীয়ভাবে যেখানে এ হার ২৬ শতাংশ।

- Advertisement -

হগ তার প্রতিবেদনে লিখেছেন, ক্রয়ক্ষমতা অর্থপূর্ণভাবে ফিরে পেতে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে। কানাডার কিছু বড় আবাসন বাজারের ক্রেতাদের কোনো কোনো সময় কঠিন সময়ের মোকাবিলা করতে হবে। আমাদের ধারণা হচ্ছে, সুদের হার না কমা পর্যন্ত অন্টারিও এবং ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় বাড়ি কেনা-বেচা বিশেষভাবে মন্থর থাকবে। এরপর পরিস্থিতি ঘুরে দাঁড়ালেও তা হবে প্রথমে বেশ আস্তেধীরে।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিদ্যমান আবাসন বাজারের মূল্যের ভিত্তিতে চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে টরন্টোর গড়পড়তা পরিবারগুলোর আয়ের প্রায় ৮৪ শতাংশ বাড়ির মালিকানার পেছনে ব্যয় হয়ে গিয়ে থাকতে পারে। এ হার ভ্যানকুভারের চেয়ে বেশ কম। ভ্যানকুভারে গড়পড়তা পরিবারগুলোর আয়ের ১০২ দশমিক ৬ শতাংশ বাড়ি ক্রয়ের পেছনে চলে গিয়ে থাকতে পারে।

হগ বলছেন, তবে আশার কথা হলো বাড়ি ক্রয়ের সামর্থ্যরে নাজুক পরিস্থিতি শেষ হওয়ার পথে রয়েছে এবং ২০২৪ সালে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। সে সময় বাড়ির দাম কমবে বা স্থিতিশীল থাকবে। এর বিপরীতে পরিবারগুলোর আয় বাড়বে।

তিনি বলেন, বাড়ি ক্রয়ের সামর্থ্য শিগগিরই মহামারি-পূর্ববর্তী অবস্থায় ফিরবে না। এমনকি ব্যাংক অব কানাডা ২০২৪ সালের দ্বিতীয়ার্ধে নীতিনির্ধারণী সুদের হার কমালেও।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহামারির সময় ক্রয়ক্ষমতার হ্রাস কানাডায় বাড়ির ক্রেতার সংখ্যা সংকুচিত করেছে। আয়ের ভিত্তিতে ২০১৯ সালে কমপক্ষে ৬০ শতাংশ পরিবার অন্ততপক্ষে একটি নিয়মিত কন্ডো অ্যাপার্টমেন্ট কিনতে পারতেন। ২০২৩ সালে সেই হিস্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৪৫ শতাংশে।

গ্রেটার টরন্টো এরিয়াতে সব ধরনের বাড়ির দাম সর্বোচ্চে ওঠে ব্যাংক অব কানাডার সুদের হার বৃদ্ধির আগে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে। সে সময় বাড়ির দাম দাঁড়ায় ১৩ লাখ ৩৪ হাজার ৬২ ডলারে। এরপর মূল্য কমে দাঁড়ায় ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৫৪২ ডলারে। টরন্টো রিজিয়নাল রিয়েল এস্টেট বোর্ডের সাম্প্রতিক উপাত্ত অনুযায়ী জিটিএতে বাড়ির গড় দাম এখন ১১ লাখ ২৫ হাজার ৯২৮ ডলার।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles