13 C
Toronto
বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

রাশিয়ায় তারকাদের ‘অর্ধনগ্ন’ পার্টি, ক্ষুব্ধ পুতিন

রাশিয়ায় তারকাদের ‘অর্ধনগ্ন’ পার্টি, ক্ষুব্ধ পুতিন

রাশিয়ায় বিনোদন জগতের তারকাদের একটি ‘অর্ধনগ্ন’ পার্টি নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক ও সমালোচনা শুরু হয়েছে। দেশটির জনপ্রিয় সংগীতশিল্পীসহ তারকাদের অনেকেই প্রায় নগ্ন হয়ে যোগ দিয়েছিলেন সেখানে। সেই পার্টির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভাইরাল হয়।

- Advertisement -

এরপরই রুশ কর্তৃপক্ষ, ক্রেমলিনপন্থী আইনপ্রণেতা ও ব্লগার, রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ও অর্থোডক্স গির্জা–সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো এ নিয়ে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনও এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২০ ডিসেম্বর মস্কোর মুতাবর নাইটক্লাবে ওই পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল। পরিচিত ব্লগার ও টেলিভিশন উপস্থাপক নাস্তিয়া ইভলিভা ওই পার্টির আয়োজন করেছিলেন।

জানা গেছে, এটি একটি ব্যক্তিগত পার্টি ছিল। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও এবং ছবি প্রকাশ্যে আসার পরই সমালোচনার শুরু হয়। এরইমধ্যেই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের কারো কারো বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আবার অনেককে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রাশিয়া যখন ইউক্রেনে যুদ্ধ চালাচ্ছে এবং রুশ কর্তৃপক্ষ রক্ষণশীল সামাজিক অ্যাজেন্ডা বাস্তবায়নের ওপর জোর দিচ্ছে, তখন ‘প্রায় নগ্ন’ ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা নিয়ে ব্যাপক বির্তক সৃষ্টি করেছে। খোদ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এ ঘটনায় নাখোশ হয়েছেন।

ওই অনুষ্ঠানে যে তারকারা যোগ দিয়েছিলেন, তাদেরই একজনের ব্যাখ্যা শুনছেন পুতিনের মুখপাত্র, এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ও সংবাদমাধ্যম বাজা–তে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে বলা হয়, ওই পার্টির ফুটেজ দেখার পর অনেকে অভিযোগ জানাতে শুরু করেন। এর মধ্যে ইউক্রেন রণাঙ্গনে যুদ্ধরত রুশ সেনারাও আছেন।

তবে পার্টির প্রসঙ্গে পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, এ কেলেঙ্কারির ঘটনা নিয়ে প্রকাশ্যে মন্তব্য করতে তিনি অপারগ। এ জন্য তিনি ক্ষমা চান।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভার বরাতে বার্তা সংস্থা উরা ডট আরইউয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই পার্টিতে যারা অংশ নিয়েছিলেন, তারা ‘কলঙ্কিত’ হয়েছেন, তবে এখনো তাদের শোধরানোর সুযোগ আছে।

এদিকে পার্টিতে অংশ নেয়া বিখ্যাত তারকাদের অনেককে কনসার্ট ও টিভি অনুষ্ঠান থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। কারও কারও স্পনসরের সঙ্গে চুক্তি বাতিল হয়েছে।

অন্যদিকে পার্টিতে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের অনেকে অডিও-ভিডিওয়ের মাধ্যমে ক্ষমা প্রার্থনা করছেন। তাদের একজন সাংবাদিক কাসেনিয়া সবচাক।

এছাড়া ওই পার্টিতে ইভলিভা ২ কোটি ৩০ লাখ রুবলের গয়না পরেছিলেন। যে সময় রুশ নাগরিকদের অনেকেই জীবন চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন, সে সময় এমন দামি গয়না পরা নিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন ইভলিভা। ক্ষমা চেয়ে তিনি দুটি ভিডিও প্রকাশ করেন।

রাশিয়ার কর কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে ইভলিভার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে। দোষী সাব্যস্ত হলে তার পাঁচ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে। কয়েকজন ব্যক্তি ইভলিভার বিরুদ্ধে মস্কোর আদালতে মামলা করেছেন। তাদের দাবি, ‘নৈতিক অনুভূতিতে আঘাত’ দেওয়ার কারণে ইভলিভা যেন ১০০ কোটি রুবল ক্ষতিপূরণ দেন।

তারা আরো চান, ক্ষতিপূরণ হিসেবে পাওয়া এ অর্থ যেন ইউক্রেনে যুদ্ধ করা সেনাদের জন্য খরচ করতে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, আগামী মার্চে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বর্তমান প্রেসিডেন্ট পুতিন আরো ছয় বছরের জন্য নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন বলে আশা করা হচ্ছে। তবে এরমধ্যে ডিমের মূল্যবৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির মতো ঘটনাগুলোকে ছাপিয়ে এই পার্টি কেলেঙ্কারির ঘটনা কিছুদিন ধরে রুশ সংবাদের শিরোনাম হচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles