মালালার বর কে এই আসের?

- Advertisement -
হুট করেই বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন নোবেল বিজয়ী পাকিস্তানি অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই

পিসিবিতে যোগ দেওয়ার আগে একটি অ্যামেচার ক্রিকেট লিগের উচ্চপদে কর্মরত ছিলেন আসের। ইএসপিএন ক্রিকইনফো সূত্র অনুযায়ী, এর আগে আসার মালিক একটি প্লেয়ার-ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং ‘লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ড’ নামক একটি অ্যামেচার লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক ছিলেন।

সবাকে অবাক করে দিয়ে হুট করেই বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন নোবেল বিজয়ী পাকিস্তানি অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই। নিজের বিয়ের ব্যাপারে কোনো রাখঢাক করেননি ২৪ বছর বয়সী মালালা। গতকাল মঙ্গলবার নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্টের মাধ্যমে নিজের বিয়ের খবর জানান তিনি। সাথে জীবনসঙ্গী ও পরিবারের সঙ্গে সহাস্যমুখে তোলা ছবিও জুড়ে দিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

ঘরোয়া এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নিজের দীর্ঘদিনের সঙ্গী আসের মালিকের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন মালালা। যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে নিজ বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে তাদের ‘নিকাহ’ সম্পন্ন হয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে এবারই প্রথমবারের মতো নিজের স্বামীকে জনসম্মুখে আনলেন মালালা। এর আগে মালালার প্রণয় সম্পর্কে বাইরের কারো কোনো ধারণা ছিলনা বললেই চলে। মালালার স্বামী আসের মালিক পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের একজন কর্মকর্তা।

আগেপরে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে প্রথাগত বিবাহ রীতি নিয়ে নিজের অবিশ্বাস প্রকাশ করলেও, মালালা জানিয়েছেন, আসের মালিকের সাথে পরিচয়ের পর তার চিন্তাধারা বদলে গেছে। নবদম্পতির ছবিগুলোই প্রমাণ দেয়, তারা একে-অপরকে কতটা আপন করে নিয়েছেন!

কে এই আসের মালিক?

বলাই বাহুল্য, মালালার বিয়ের সংবাদে অবাক হওয়া জনতার সংখ্যাটা একটু বেশি। ঠিক কেমন ব্যক্তিকে স্বামী হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি, তা জানার জন্যও মুখিয়ে আছেন অনেকে।

জানা গেছে, ক্রিকেট মাঠেই আসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে মালালার। মালালার স্বামী আসের মালিক পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) হাই-পারফরমেন্স সেন্টারের জেনারেল ম্যানেজার। আসের মালিকের লিংকডইন প্রোফাইল বলছে, ২০২০ সালের মে মাসে এই পদে যোগ দেন তিনি। এছাড়া তার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলেও ক্রিকেট সংক্রান্ত বিভিন্ন ইভেন্টের ছবি পাওয়া গেছে।

পিসিবিতে যোগ দেওয়ার আগে একটি অ্যামেচার ক্রিকেট লিগের উচ্চপদে কর্মরত ছিলেন আসের। ইএসপিএন ক্রিকইনফো সূত্র অনুযায়ী, এর আগে তিনি একটি প্লেয়ার-ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং ‘লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ড’ নামক একটি অ্যামেচার লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক ছিলেন।

পাকিস্তানি সুপার লিগ (পিএসএল) ফ্র্যাঞ্চাইজি মুলতান সুলতানস-এর সঙ্গে একজন অপারেশনাল ম্যানেজার হিসেবেও কাজ করেছেন আসের। এর বাইরে তিনি নিজেও একটি প্লেয়ার ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি চালিয়েছেন।

২০১২ সালে তিনি লাহোর ইউনিভার্সিটি অব ম্যানেজমেন্ট সায়েন্সেস থেকে অর্থনীতি ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানে ব্যাচেলর’স ডিগ্রি লাভ করেছেন।

পড়ালেখার বাইরে থিয়েটারের সাথেও যুক্ত ছিলেন আসের। ‘ড্রামালাইন’ নামের একটি থিয়েটার সংগঠনের সভাপতি হিসেবেও কাজ করেছেন।

মালালা ইউসুফজাইয়ের সঙ্গে আসের মালিকের ঠিক কবে কীভাবে পরিচয়, তা এখনো স্পষ্ট নয়। তবে ২০১৯ সালের জুন থেকেই তারা একে-অপরকে চেনেন বলে জানা গেছে।

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে এজব্যাস্টন স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের ক্রিকেট টিমের সমর্থনে উল্লাস করার সময় মালালাকে নিয়ে তোলা একটি গ্রুপ সেলফি নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন আসের মালিক।

নারীশিক্ষা ও নারীদের অধিকার নিয়ে বরাবরই সোচ্চার মালালা ইউসুফজাই। নারীদের স্কুলে যেতে না দেওয়ার জন্য তালেবানদের নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে আসছেন তিনি।

১৫ বছর বয়সে পাকিস্তানে নিজের স্কুল থেকে ফেরার পথে তালেবানদের হাতে গুলিবিদ্ধ হন মালালা। গুলিটি তার মাথায় আঘাত করে এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্যে নিয়ে আসা হয় তাকে।

এরপর থেকে পরিবারসহ যুক্তরাজ্যেই বসবাস করছেন মালালা। ২০১৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ভারতের কৈলাশ সত্যার্থীর সঙ্গে মিলিতভাবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন তিনি। এর মাধ্যমে বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ নোবেল বিজয়ী ব্যক্তিত্ব হওয়ার সম্মান অর্জন করেন মালালা।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles