প্রিয় চারপিতা মরিচের স্যান্ডউইচ এবং এভাকাডো স্প্রেড !!

- Advertisement -
এইদেশে চারপিতা মরিচের সাথে পরিচয় আমাদের ব্রাম্পটন প্রবাসী মামুন ভাইয়ের মাধ্যমে

এইদেশে চারপিতা মরিচের সাথে পরিচয় আমাদের ব্রাম্পটন প্রবাসী মামুন ভাইয়ের মাধ্যমে। প্রতিবছর সামারে উনাদের কাছে ছুটে যাই এই মরিচের লোভে। আমি ঝাল বেশি পছন্দ করি না, কিন্তু এই মরিচটির ঘ্রাণ আমাকে মুগ্ধ করে তাই আমি এই মরিচ বলতে গেলে সব কিছুতে দেই। শুধু মাত্র ২/১ মরিচ দিলেই খুব সুন্দর ফ্লেভার পাওয়া যায়, আবার ঝালও খুব বেশি লাগে না। যাদের ঝাল দরকার তারা ২/১টার পরিবর্তে বেশি করে দিলেই পর্যাপ্ত ঝাল পাবে।
মামুন ভাইয়ের কাছ থেকে চারা এনে আমাদের ব্যালকনিতে লাগিয়েছিলাম, কিন্তু গাছ হলেও মরিচ ধরেনি, যদিও অন্য মরিচ ধরেছিলো। সামারে এই মরিচের চাষ আমাদের এখানে অনেক সৌখিন বাগানী করে থাকেন।

এখানে আমি এই মরিচ দিয়ে বানানো একটি লো-ক্যালোরি বেগেল স্যান্ডউইচ এবং এভাকাডো স্প্রেড এর ছবি দিয়েছি। এই চারপিতা মরিচ মেশানো এভাকাডো স্প্রেড আমার অফিসের কলিগরা খুব পছন্দ করেছে। এমনকি সেদিন সাইফুল এবং মাহবুব ভাইয়ের বচ্চারা এসেছিলো, ওরাও ক্রাকার্স দিয়ে মজা করে খেয়েছে। আপনি চেষ্টা করে দেখতে পারেন, খুব ভালো লাগবে। এভাকাডোর স্প্রেড এর রেসিপি আমি আগে শেয়ার করেছি। ওর মধ্যে শুধু রেগুলার মরিচের পরিবর্তে চারপিতা দিতে হবে।
আর ছবির বেগেলটির উপর প্রথম এক প্রলেপ হালকা এভাকাডো স্প্রেড, তার উপর বিভিন্ন Herb মিশ্রিত Boursin চিজের হালকা এক প্রলেপ এবং তার উপরে শুধু কিছু গ্রিন অলিভ এবং চারপিতা মরিচের কিছু স্লাইচ। খুবই সুস্বাধু এবং স্বাভাবিক স্যান্ডউইচের থেকে অনেক ক্যালোরি কম। দুঃখের বিষয় মরিচটি বাজারে পাওয়া যায় না। শুনেছি এটি নাকি এক্সপেন্সিভ মরিচ। তাতেও আমার অসুবিধা ছিল না যদি বাজারে পাওয়া যেত।

- Advertisement -

অনেক অনেক ধন্যবাদ মামুন ভাই এবং ভাবীকে, এই সুন্দর এবং সুস্বাদু জিনিসটির সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়া এবং সামারে সরবরাহ দেওয়ার জন্য। আল্লাহ আপনাদের মঙ্গোল করুন।

টরন্টো, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles