22.1 C
Toronto
বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

মিসিসোগার একটি রেস্তোরাঁ সাপ্তাহিক মুনাফা দান করল মরক্কোর ভূমিকম্প ক্ষতিগ্রস্তদের

মিসিসোগার একটি রেস্তোরাঁ সাপ্তাহিক মুনাফা দান করল মরক্কোর ভূমিকম্প ক্ষতিগ্রস্তদের
মরক্কোস কিচেনের মালিক মোনা আহমেদ বলেন যেসব লোকজন আশ্রয় এবং পানি ও বিদ্যুতের অভাবের মধ্যে রয়েছেন এই অর্থ সরাসরি তাদের কাছে যাবে

মিসিসোগাতে মরক্কোর একটি রেস্তোরাঁ তাদের সাপ্তাহিক মুনাফা মরক্কোয় আঘাত হানা ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় দান করেছে। শক্তিশালী ওই ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।

মরক্কো’স কিচেনের মালিক মোনা আহমেদ বলেন, যেসব লোকজন আশ্রয় এবং পানি ও বিদ্যুতের অভাবের মধ্যে রয়েছেন এই অর্থ সরাসরি তাদের কাছে যাবে।

- Advertisement -

আহমেদ ভূমিকম্পের দিন সারারাত মরক্কোতে তার পরিবারের সদস্যদের ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্য দিয়ে কাটান। ৬ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের খবর শোনার পরপরই তিনি তার বোনকে ফোন করেন। কিন্তু তার বোনের সাড়া পাচ্ছিলেন তিনি। তাই আতঙ্ক ঘিরে ধরে তাকে।

আহমেদ বলেন, কি করতে হবে আমি বুঝে উঠতে পারছিলাম না। কী করা উচিত? এ কারণে আমি কেবলমাত্রা তাকে ফোন করার চেষ্টা করছিলাম। শেষ পর্যন্ত এক প্রতিবেশীর মাধ্যমে বোনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সমর্থ হই।

তারা যখন কথা বলছিলেন তখন তার বোন ভূমিকম্পের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলছিলেন কীভাবে দেওয়ালগুলো দুলছিল। সে সময় তিনি তার সোফায় বসে ছিলেন। তিনি দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু দরজা খোলা সম্ভব হয়নি। তার কাছে মনে হচ্ছিল এই বুঝি মারা যাচ্ছেন।
আহমেদ বলেন, সৌভাগ্যবশত ধাক্কা খেয়ে দরজাটি এক পর্যায়ে খুলে যায় এবং তার বোন বাড়ি থেকে বের হতে সক্ষম হন। বোন যা দেখেছিলেন সেই বর্ণনা দিতে গিয়ে আহমেদ বলেন, প্রত্যেকেই কান্নাকাটি করছিল। প্রত্যেকেই কেবল প্রার্থনা করছিল। সারারাত তারা বাএির কাটিয়েছিলেন।

শনিবার বিকাল পর্যন্ত ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ৩০৫ জনে। নিহতদের বেশিরভাগই মারাকেশ এবং পাশর্^বর্তী প্রদেশগুলোর। এ ছাড়া ভূমিকম্পে আহত হয়েছেন আরও ১ হাজার ৮৩২ জন। তাদের মধ্যে ১ হাজার ২২০ জনের অবস্থঅ আশঙ্কাজনক।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles