26.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

সুখের অন্বেষণ করা নয় সুখকে নিশ্চিত করতে হবে

সুখের অন্বেষণ করা নয় সুখকে নিশ্চিত করতে হবে
একজন মানুষ যেকোনো ধরণের ভোগান্তির মোকাবেলা করতে পারবে যদি তার জীবনের কোনো অর্থ থাকে তবে একজন মানুষকে জীবনের এই মানে খুঁজে বের করতে হবে এমনকি সে যদি এই বিশ্বে একাকী ব্যাক্তিও হন

গত বছর এই সময়ে অস্ট্রিয়ার মনোবিজ্ঞানী/মনোচিকিৎস্যক Viktor Frankl এর “Man’s Search for Meaning”. বইয়ের কিছু কথা লিখেছিলাম।

কথাগুলি এই বছরে এখনো খুবই প্রযোজ্য। Viktor Franklই কিন্তু Logotherapyর উদ্ভাবক।
Viktor Frankl এর এই বইয়ের দ্বিতীয় অংশের কিছু কথা বর্তমানে আমাদের সবার জন্য খুব কার্যকর।

- Advertisement -

উনি সেখানে বলেছেন যে, জীবনের যদি কোনো মানে থেকে থাকে, তাহলে ভোগান্তিরও মানে আছে। এমনকি ভোগান্তিও জীবন মৃত্যুর মতো জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ। ভোগান্তি এবং মৃত্যু ব্যাতিত মানবজীবন অসম্পূর্ণ।

উনি বলেছেন একজন মানুষ যেকোনো ধরণের ভোগান্তির মোকাবেলা করতে পারবে যদি তার জীবনের কোনো অর্থ থাকে, তবে একজন মানুষকে জীবনের এই মানে খুঁজে বের করতে হবে, এমনকি সে যদি এই বিশ্বে একাকী ব্যাক্তিও হন।

উনি আরও বলেছেন আমরা যখন আমাদের অবস্থার কোনো পরিবর্তন করতে না পারি তখন আমরা আমাদের নিজেদেরকেই পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ করি। যেমনটি এখনকার বিশ্ব পরিস্থিতিতে খুব প্রয়োজন। সুখের অন্বেষণ করা নয় সুখকে নিশ্চিত করতে হবে।

তবে উনি যে এই নিজেদেরকে পরিবর্তনের কথা বলেছেন সেটাকে আবার হুট্ করে করা ঠিক হবে বলে আমি মনে করি না। রয়ে-সোয়ে যার যার নিজেস্ব আঙ্গিকে করতে হবে। এবং একটু লক্ষ করলেই দেখা যাবে আমাদের সবার মধ্যেই কিছু না কিছু পরিবর্তনের সুযোগ রয়ে গেছে যাকিনা আমরা প্রায়শই উপেক্ষা করে যাচ্ছি অথচ এগুলির পরিবর্তন আনতে পারলে ভোগান্তি থাকলেও জীবন আরো সুন্দর হবে।

অতি ছোট বা অতি সাধারণ জিনিসের মধ্যে থেকে সুখ/আনন্দ/শান্তি খুঁজতে হবে এবং নিজের কর্মের মধ্যে যেনো নিজের প্রয়োজনের সাথে সাথে কিছুটা অন্যের প্রয়োজনও নিহিত থাকে।
সহায়সম্পত্তি বা অর্থহীন মানুষেরও অন্যের জন্য কিছু না কিছু করার থাকে, অন্তত আমরা সেতুটকুই যেন করি।

সৃষ্টিকর্তা আমাদের সহায় হউন।

স্কারবোরো, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles