সেমিফাইনালের পথ কঠিন হয়ে গেলো ভারতের

- Advertisement -

পাকিস্তানের পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও হারার আগেই হেরে গেল ভারত। নিজেদের প্রথম ম্যাচের মতো কিউইদের বিপক্ষেও ন্যূনতম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারল না বিরাট কোহলির দল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারত হেরেছে ৮ উইকেটের ব্যবধানে। টানা দুই হারে সেমিফাইনালের স্বপ্ন অনেকটা মিইয়ে গেল টি-টোয়েন্টির প্রথম বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

- Advertisement -

ভারতের দেওয়া ১১১ রানের লক্ষ্য হেসেখেলেই পেরিয়ে গেছে নিউজিল্যান্ড। ভারতীয় বোলারদের সাফল্য বলতে মার্টিন গাপটিল আর ড্যারিল মিচেলের উইকেট। দলীয় ২৪ রানে জাসপ্রিত বুমরার বলে মিড অনে শার্দুল ঠাকুরের হাতে ক্যাচ দেন গাপটিল (১৭)। এরপর মিচেল আর কেন উইলিয়ামসন দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন। ভারতও ধীরে ধীরে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে। দ্বিতীয় উইকেটে এই দুজনের ৫৪ বলে ৭২ রানের জুটিতে জয়ের ভিত গড়ে নিউজিল্যান্ড। ফিফটি পেতে ১ রান দূরে থাকতে বুমরার বলে মিচেল ফিরলে ভাঙে দ্বিতীয় উইকেট জুটি। পরে ডেভন কনওয়েকে নিয়ে বাকি কাজটুকু সারেন উইলিয়ামসন। কিউই অধিনায়ক শেষপর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৩৩ রানে।

এর আগে টস জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান উইলিয়ামসন। ২০১৩ সালের পর এই ম্যাচ দিয়ে তৃতীয়বার ওপেনিংয়ে দেখা যায়নি রোহিত শর্মাকে। বিশ্বকাপে প্রথমবার সুযোগ পাওয়া ঈশান কিষানকে নিয়ে শুরুটা বেশ দেখেশুনে করেন লোকেশ রাহুল। বলা ভালো কিউই বোলারদের আঁটসাঁট বোলিংয়ে দুই ভারতীয় ওপেনার শুরু থেকে স্বাচ্ছন্দ্যে ছিলেন না।

- Advertisement -

তৃতীয় ওভারে ট্রেন্ট বোল্টের বলে মিচেলের হাতে ক্যাচ দেন কিষান (৪)। তিন নম্বরে এসে প্রথম বলেই ফাইন লেগে ক্যাচ দিয়েছিলেন রোহিত। সহজ ক্যাচ তালুবন্দী করতে পারেননি অ্যাডাম মিলনে। ক্যাচ দিয়েও রোহিত অবশ্য বেশি দূর এগোতে পারেননি। ১০ বলে ১৪ রান করে ইশ সোধির বলে গাপটিলের হাতে ক্যাচ দেন রোহিত। রোহিতের আগে ফিরেছেন রাহুলও (১৮)।

- Advertisement -

শুরুর এই ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেননি ঋষভ পন্ত-বিরাট কোহলিরা। ১৭ বলে ৯ রানের মন্থর ইনিংস খেলে ভারতীয় অধিনায়ক আউট হয়েছেন সোধির বলে। ১৯ বলে ১২ করা পন্তকে বোল্ড করেছেন মিলনে। ৭০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারালে পরের ব্যাটাররাও আর খোলস থেকে বের হতে পারেননি।

শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়া অবশ্য চেষ্টা করেছেন। তবে ২৪ বলে ২৩ রানের বেশি করতে পারেননি ভারতীয় অলরাউন্ডার। ভারত এক শ পেরোয় রবীন্দ্র জাদেজার অপরাজিত ১৯ বলে ২৬ রানের সুবাদে। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১১০ রান তুলেছিল ভারত। টি-টোয়েন্টিতে ভারতের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন এই স্কোর কিউইদের বিপক্ষে জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles