26.6 C
Toronto
রবিবার, জুলাই ২১, ২০২৪

মুখের লালাই বলে দেবে অন্তঃসত্ত্বা কি না

মুখের লালাই বলে দেবে অন্তঃসত্ত্বা কি না

আর নয় ইউরিন টেস্টের ঝামেলা। এখন থেকে মুখের লালা পরীক্ষাই বলে দেবে নারী অন্তঃসত্ত্বা কি না। এরই মধ্যে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে মুখের লালায় প্রেগন্যান্সি টেস্ট চালু করেছে যুক্তরাজ্য।

- Advertisement -

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেট্রোর খবরে জানানো হয়েছে, মুখের লালা পরীক্ষায় ব্যবহৃত হচ্ছে স্যালিস্টিক নামে একটি টেস্ট কিট। এটি এরই মধ্যে যুক্তরাজ্য এবং আয়ারল্যান্ডের বাজারে ছাড়া হয়েছে।

এই টেস্ট কিট যেকোনো সময় যেকোনো স্থানে ব্যবহার করতে পারবেন নারীরা। কিটটি খুলে শুধু মুখের ভেতর কিছুক্ষণ ধরে রাখতে হবে, অনেকটা থার্মোমিটারের মতো করে।

ফলাফল পাওয়া যাবে পাঁচ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যে। তবে প্রাথমিক ইঙ্গিত তিন মিনিটের মধ্যে আসতে শুরু করে বলে জানিয়েছেন নির্মাতারা।

মুখের লালাই বলে দেবে অন্তঃসত্ত্বা কি না

মুখের লালায় প্রেগন্যান্সি হরমোন বেটা-এইচসিজি’র উপস্থিতি শনাক্তের মাধ্যমে কাজ করে স্যালিস্টিক। এটি তৈরি করেছে ইসরায়েলি মেডিকেল স্টার্টআপ স্যালিগনোস্টিকস।

তারা বলেছে, পিরিয়ড মিস হওয়ার এক বা দুদিন পর স্যালিস্টিক ব্যবহার করলে তুলনামূলক নির্ভুল ফলাফল পাওয়া যাবে।

একই কোম্পানি লালা-নির্ভর কোভিড-১৯ র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের একটি পদ্ধতি আবিষ্কার করেছে। এখন তারা মুখের লালা পরীক্ষার মাধ্যমে আরও নানা রোগ শনাক্তকরণের বিষয়ে কাজ করছে।

যুক্তরাজ্যের বাজারে স্যালিস্টিকের এর দাম ধরা হয়েছে ৯ দশমিক ৯৯ পাউন্ড (১ হাজার ৩৭৫ টাকা প্রায়) এবং আয়ারল্যান্ডে ১১ দশমিক ৯৯ ইউরো (১ হাজার ৪১৪ টাকা প্রায়)। তবে খুচরা পর্যায়ে দামের কিছুটা তারতম্য হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

টাইমস অব ইসরায়েলের একটি পুরোনো প্রতিবেদন বলছে, স্যালিগনোস্টিকস ইউরোপীয় ইউনিয়নে স্যালিস্টিক বাজারজাতকরণের অনুমতি পায় গত বছর। যুক্তরাষ্ট্রে বাজারজাতকরণের অনুমতি চেয়ে তারা এফডিএ’র কাছেও আবেদন করেছিল।

ইসরায়েলে অন্তঃসত্ত্বা ও অন্তঃসত্ত্বা এমন তিন শতাধিক নারীর ওপর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালানোর পরে এই কিট বাজারে আনে স্যালিগনোস্টিকস।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles