5 C
Toronto
মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২

সেফটি জোনে ৯৫ কিমি গতিতে গাড়ি চালিয়ে ধরা পড়লেন শিক্ষক

সেফটি জোনে ৯৫ কিমি গতিতে গাড়ি চালিয়ে ধরা পড়লেন শিক্ষক
ছবি/ম্যাক্স জার্জ

স্কুলের প্রথম দিনেই সেফটি জোনের মধ্যে একজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে নির্ধারিত সীমার দ্বিগুন গতিতে গাড়ি চালানোর অভিযোগ উঠেছে। ডারহাম পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার ৯৫ কিলোমিটার গতিতে গাড়ি চালিয়ে ধরা পড়েন। সেফটি জোনে গাড়ির সর্বোচ্চ গতিসীমা বেঁধে দেওয়া আছে ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার। স্কুলের প্রথম দিন প্রথম স্টান্ট ড্রাইভার একজন শিক্ষক। তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে ঠিক কোথায় ঘটনাটি ঘটেছে তা প্রকাশ করেনি ডারহাম পুলিশ।

অন্টারিওতে যেখানে যানবাহনের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটারের নিচে বেঁধে দেওয়া আছে সেখানে কেউ এ সীমার চেয়ে ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার বা তার বেশি গতিতে গাড়ি চালালে তার বিরুদ্ধে স্টান্ট ড্রাইভিংয়ের অভিযোগ আনা হয়। চালকের রোডসাইড ড্রাইভার’স লাইসেন্সও ৩০ দিনের জন্য স্থগিত রাখা হয়। অন্টারিওতে স্টান্ট ড্রাইভিংয়ের সর্বোচ্চ জরিমিানা ১০ হাজার ডলার। সেই সঙ্গে ছয় মাসের কারাদ-ের বিধানও রয়েছে।

- Advertisement -

শিশুরা স্কুলে ফিরতে শুরু করায় চালকদের সড়কের ওপর ঘনিষ্ঠ নজর রাখতে পুলিশের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া লোকজন কর্মক্ষেত্রে ফিরতে শুরু করায় কয়েক মাস ধরে সড়কে যানবাহনের সংখ্যা ব্যাপক বেড়ে গেছে। সেপ্টেম্বরে শিক্ষার্থীরা স্কুলে ফিরতে শুরু করায় আগামীতে যানবাহনের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে জানান অন্টারিও প্রভিন্সিয়াল পুলিশের সার্জেন্ট কেরি শিমিড্ট।

স্কুল জোনে গতিসীমা লঙ্ঘন করতে পারে এমন চালকদের লক্ষ্য করে টরন্টো পুলিশ সার্ভিস তাদের ব্যাক-টু-স্কুল ক্যাম্পেইনও শুরু করেছে। ওই এলাকায় যারা অবৈধভাবে গাড়ি পার্ক করবে তাদের দিকেও নজর থাকবে পুলিশের।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পুলিশ বলেছে, গাড়িচালকরা আমাদের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক ব্যবহারকারী, স্কুল শিক্ষা
র্তী, পথচারী ও সাইক্লিস্টদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নেবেন এটাই স্বাভাবিক।

সিএএ সাউথ সেন্ট্রাল অন্টারিওর জন্য পরিচালিত এক সমীক্ষার ফল অনুযায়ী, অন্টারিওর ৭৮ শতাংশ পিতা-মাতারা স্কুল জোনে চালকদের মধ্যে অনিরাপদসূলভ আচরনের কথা উল্লেখ করেছেন। গতিসীমা লঙ্ঘন, যেখানে-সেখানে গাড়ি পার্ক করা এবং ডাবল পার্কিং এর মধ্যে অন্তর্গত। স্কুলের চারপাশের সড়ককে খুব নিরাপদ বলে উল্লেখ করেছেন ৩৭ শতাংশের মতো বাবা-মা।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles