14.1 C
Toronto
রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

এসির অভাবে ঘামছেন টরন্টোর ৫ লাখ মানুষ

- Advertisement -
ইনট্যাক্ট সেন্টারের প্রধার এবং প্রতিবেদনের সহলেখক ব্লেয়ার ফেল্টমেট

ঠান্ডা পানিতে গোসল, শারীরিক কাযকর্মে বিরতি, জানালার পর্দাগুলো বন্ধ এবং ইলেক্ট্রিক ফ্যানগুলোর অনবরত ঘূর্ণন। টরন্টোর এয়ার কন্ডিশন্ড না থাকা অ্যাপার্টমেন্টে গত কয়েকদিন ধরে এভাবেই কাটাচ্ছেন কিকি জোন্স। এসব পদক্ষেপের পরও গ্রীষ্মের প্রচন্ড তাপ থেকে নিষ্কৃতি পাচ্ছেন না ৩১ বছর বয়সী কিকি।
তিনি বলছিলেন, সাত বছর ধরে আমি টরন্টোতে বাস করছি এবং এই পুরো সময়টাতে আমি থেকেছি এ/সি ছাড়াই। বুঝতেই পারছেন বেশ কায়দা করেই আমাকে থাতে হয়েছে। কিন্তু তাপমাত্রা একটা পর্যায়ে গেলে তা থেকে নিজেকে রক্ষঅ করা সত্যিই কঠিন হয়ে পড়ে।

প্রচন্ড গরমের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে অন্টারিও। তাপমাত্রা ৩০ সেন্টিগ্রেড পর্যন্তও পৌঁছেছে। টরন্টোর যে ৫ লাখের মতো বাসিন্দা এয়ার কন্ডিশনের ব্যবস্থা না থাকা অ্যাপার্টমেন্টে বসবাস করছেন, তাদেরকে উচ্চ তাপ-সম্পর্কিত অসুস্থ্যতা থেকে রক্ষা করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ, ভবিষ্যতে চরম তাপমাত্রার বিষয়টি নিয়মিত ঘটনা হয়ে দাঁড়াতে পারে।

অ্যাজমার সমস্যায় ভোগা জোন্স বলেন, বাড়িতে আসার পর এতটাই বমিবমি ভাব হচ্ছিল যে, সত্যিই আমি কিছু করতে পারছিলাম না।

ইউনিভার্সিটি অব ইনট্যাক্ট সেন্টার অন ক্লাইমেট অ্যাডাপ্টেশনের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এই বলে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে, অপ্রতিরোধ্য জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে চরম তাপমাত্রা ক্রমেই বিপজ্জনক হয়ে উঠছে। আরবান হিট আইল্যান্ডের প্রভাবে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছে শহুরে কেন্দ্রগুলো। নির্দিষ্ট কিছু শহুরে স্থানে গ্রামীণ এলাকার তুলনায় দিনের তাপমাত্রা ১০ থেকে ১৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত বাড়তে পারে। রাতের তাপমাত্রা বাড়তে পারে ১২ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত।
ইনট্যাক্ট সেন্টারের প্রধার এবং প্রতিবেদনের সহলেখক ব্লেয়ার ফেল্টমেট বলেন, চরম তাপমাত্রার কারণে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন শহরের সুউচ্চ ভবন, যেখানে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নেই, সেখানকার বাসিন্দারা। ঠিক যেন টাইম বোম, যা বিস্ফোরণের জন্য তাপমাত্রা আরও বৃদ্ধি ও বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের অপেক্ষায় রয়েছে। চরম তাপমাত্রার প্রভাব কমিয়ে আনা এবং এর সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার মতো একাধিক উপায় টরন্টোর মতো শহরের হাতে রয়েছে।

তার মতে, হিট আইল্যান্ডের প্রভাব প্রতিরোধে অ্যাপার্টমেন্টগুলোতে প্রয়োজনের সময়ে বিদ্যুৎ সরবরাহের সক্ষমতার ব্যবস্থা রাখা ও বাড়ির ছাদা সাদা রং করা যেতে পারে। সেই সঙ্গে আরও বেশি গাছের আচ্ছাদন তৈরি করতে হবে।

টরন্টো সিটি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পাচ লাখের মতো মানুষ শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ সুবিধার বাইরে অ্যাপার্টমেন্টে বসবাস করছেন।

 

Related Articles

Latest Articles