18.1 C
Toronto
শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২

সুব্রত কুমার দাস এবং একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

- Advertisement -
সুব্রত কুমার দাস

গত ৩ জুলাই টরন্টো শহরের সেলিব্রেশন ব্যাঙ্কোয়েট হলে অসিত কুমার দত্ত রচিত এবং সুব্রত কুমার দাস সম্পাদিত “আমার কথা: টরন্টোর বাঙালিদের কথা” গ্রন্থের পাঠ-উন্মোচন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পেরে সত্যি এক অভাবিত আনন্দ লাভ করেছি।

এই অনুষ্ঠানটি ছিলো একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। প্রচলিত অর্থে লেখক নন অথচ এমন একজন প্রজ্ঞাবান গুণী ব্যক্তির বৈচিত্র্যপূর্ণ অভিজ্ঞতা সমৃদ্ধ আত্মজীবনীমূলক রচনা গ্রন্থাকারে প্রকাশ করে জনসম্মূখে তুলে ধরার অসাধারণ কাজটি খুব একটা সহজ বলে আমি মনে করি না। আর এই দূরহ কাজটি সম্পাদন করা সম্ভব হয়েছে লেখক গবেষক সুব্রত কুমার দাসের একনিষ্ঠ আন্তরিক প্রচেষ্টায়।

অনুষ্ঠানে বক্তাদের আলোচনা থেকেও এটিই প্রতীয়মান হয়েছে যে সুব্রত কুমার দাস শুধু সম্পাদনা করেই ক্ষান্ত হয় নি বরং আলোচ্য গ্রন্থ রচনায় লেখককে অনুপ্রেরণা দানসহ প্রকাশনা এবং এমন একটি জমকালো পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠান সম্পাদন করার ক্ষেত্রে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য।

সর্বোপরি এমন কিছু অসাধ্য কাজ সম্পাদন বোধহয় শুধু তাঁর পক্ষেই সম্ভব। আর এ সবকিছুর পেছনে আর একজন কুশীলব আছেন, যার ভূমিকাও অসামান্য, তিনি এনআরবি টিভির কর্ণধার ও বাংলা মেইলের সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু।

অসিত কুমার দত্ত রচিত বইটি বেশ দামী কাগজে ছাপা, মনকাড়া প্রচ্ছদ আর সুন্দর বাঁধাই করা; ১৯৬ পৃষ্ঠার এ্যালবাম সাইজ এই বইটি সহজেই সবার নজর কাড়বে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।বইটি প্রকাশিত হয়েছে মূর্ধন্য, এলিফ্যান্ট রোড,ঢাকা থেকে।

আলোচ্য গ্রন্থটির পাঠ উন্মোচন অনুষ্ঠানটি ছিলো অত্যন্ত সুশৃঙ্খল, সুপরিকল্পিত এবং চমৎকার।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রায় প্রত্যেক অতিথিকে এই বইয়ের একটি করে কপি উপহার হিসেবে দেয়া হয়। আর পরিবেশিত রাতের খাবারও ছিলো অত্যন্ত সুস্বাদু ও তৃপ্তিদায়ক।

সমগ্র বইটি এখনো পড়ে শেষ করতে পারি নাই। তবে যতটুকু পড়েছি তা থেকে বলা যায় আলোচ্য বইটি নিঃসন্দেহে পাঠকদের আনন্দ দান করবে এবং বিশেষ করে অভিবাসী মানুষদের জন্য এক অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে কাজ করবে বলে আমার বিশ্বাস।
এমন একটি মহতী উদ্যোগ ও অনুষ্ঠানের সকল আয়োজকদের আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা, ভালোবাসা ও সাধুবাদ জানাই।

গিল্ডউড ভিলেজ, টরন্টো, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles