-8.2 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ২৪, ২০২২

জাতীয় পার্টিতে ‘একের পর এক চমক’ আসবে: বিদিশা

- Advertisement -

 

হুসেইন মুহাম্মাদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা

নতুন বছরে জাতীয় পার্টিতে (জাপা) ‘একের পর এক চমক’ আসবে বলে জানিয়েছেন দলটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মাদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা। জাতীয় পার্টির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে তাতে সন্তান এরিক এরশাদকে নিয়ে অংশ নেন বিদিশা।

- Advertisement -

এসময় তিনি বলেন, আর মাত্র কয়েক মাস পরেই এরিকের বয়স ২১ হবে। অপেক্ষা করুন। চমকের পর চমক আসবে সামনে। বিদিশা নিজেকে জাপার ‘পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার’ নেত্রী বলে দাবি করে আসছেন।

বিদিশা বলেন, ভুলে গেলে চলবে না, এরশাদ সাহেব সেনা পরিবারের একজন সদস্য ছিলেন। তিনি ছিলেন সেনাবাহিনীর প্রধান। এরিক আজ একা না। এরিকের সঙ্গে সেনাবাহিনীর চৌকস অফিসার এবং এরশাদকে যারা ভালোবাসেন, তারা আছেন।

এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন তার ভাই জিএম কাদের। তিনি সংসদেও বিরোধীদলীয় উপনেতা। এছাড়া সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্বে রয়েছেন এরশাদের প্রথম স্ত্রী রওশন এরশাদ। তিনি আবার জাতীয় পার্টিতে প্রধান পৃষ্ঠপোষকের পদে রয়েছেন।

এরমধ্যেই গত জুলাইয়ে এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে জাতীয় পার্টি নিয়ে সক্রিয় হওয়ার ঘোষণা দেন বিদিশা; যদিও তার এই তৎপরতার সঙ্গে দলের কোনো সম্পর্ক নেই বলে দাবি জিএম কাদেরের।

বিদিশা বলেন, আপনারা জানেন রওশন এরশাদ খুব অসুস্থ। তিনি ব্যাংককে আছেন। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, এরইমধ্যে জাতীয় পার্টির যে চেয়ারম্যান আছেন, তিনি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর পোস্টার থেকে রওশন এরশাদের ছবি মুছে ফেলেছেন। এই অমানবিক কাজটা আসলে তাকেই মানায়।

‘সাদ, এরিক- এরাই হবে আগামী দিনের লাঙলের ধারক ও বাহক। পিতার চেয়ারে শুধু ছেলেদেরই শোভা পায়। একমাত্র ছেলেরাই পারে বাবার মান রক্ষা করতে, অন্য কেউ নয়।’

রওশন এরশাদের ছেলে রাহগীর আল মাহি সাদ (সাদ এরশাদ) বর্তমানে রংপুরে তার বাবার আসনে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য।

দল ‘পুনর্গঠন’নিয়ে বিদিশা বলেন, আমাদের ৩০টি জেলায় ইতোমধ্যেই জেলা কমিটি গঠন হয়ে গেছে। ৬৪ জেলার কমিটি গঠন হলেই আমরা ঢাকায় বৃহত্তর কর্মসূচি দেব। আর সেই কর্মসূচির হাত ধরেই নেতা নির্বাচিত হবে। কিন্তু পার্টি আগের মতোই থাকবে। আমরা কারও জন্য থেমে থাকব না। আমি এখনও কাউকে বহিষ্কার করিনি। আমার দরজা সবার জন্য খোলা।

ছেলে এরিককে নিয়ে দল ‘পুনর্গঠনের কাজে’ সারাদেশে যাবেন বলেও জানান বিদিশা।

অনুষ্ঠানে সভাপতির আসনে থাকা এরিক বলেন, আজ আমার বাবা নেই, কিন্তু আপনারা আছেন। আপনাদের হাত ধরেই আমি আমার লক্ষ্যে পৌঁছাব, আপনাদের কাছ থেকে আমি এতটুকুই চাই।

তবে অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টির উল্লেখযোগ্য কোনো নেতাকে দেখা যায়নি।

উপস্থিত ছিলেন সিকদার আনিসুর রহমান, ওয়াদুদ দিদার, শাহজাহান সিরাজ, হাবিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য শিবলী রহমান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, জাতীয় ইসলামী মহাজোটের আলতাফ হোসেন ও ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির চেয়ারম্যান শেখ মুস্তাফিজুর রহমান।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles