মেসির ৪ গোল, বার্সার বড় জয় [ভিডিও]
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ফুটবলের জাদুকর বর্তমান বিশ্বে যাকে সর্বকালের ফুটবলারদের মধ্যে অন্যতম মনে করা হয় তিনি হলেন আর্জেন্টিনার তারকা খেলোয়ার লিওনেল মেসি। সারা বিশ্বে মোহিত লা লিগায় বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি এক ম্যাচ আগেই করেছিলেন হ্যাটট্রিক, এবার করলেন চার গোল। ক্লাব এইবারের জালে মেসির গোল উৎসবের রাতে ৬-১ ব্যবধানে জিতেছে বার্সেলোনা। মঙ্গলবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে মেসির গোলোৎসবের ম্যাচে প্রথমবারের মত শুরুর একাদশে সুযোগ পেয়ে জাল খুঁজে নিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান পাউলিনহো। অন্য গোলটি ডেনিশ সুয়ারেজের। ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরুটা অবশ্য নড়বড়েই হয়েছিল বার্সেলোনার। একাদশে ৬টি পরিবর্তন নিয়ে লুইস সুয়ারেজ ও ইভান রাকিটিচকে বেঞ্চে বসিয়ে দল সাজান ভালভার্দে। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে-টের স্টেগেন দেয়াল হয়ে না দাঁড়ালে অতিথিদের সের্জি এনরিচের কোনাকুনি শট স্বাগতিকদের জাল খুঁজে নিতে পারত। ১০ মিনিটে অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার ইনুইয়ের আরেকটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন স্টেগেনই। অবশ্য দ্রুতই গুছিয়ে নিতে থাকে ভালভার্দের শিষ্যরাও। ম্যাচের ২০ মিনিটে আসে প্রথম সাফল্য। এসময় ডিফেন্ডার অ্যালেজান্দ্র গ্যালভেজ নিজেদের বক্সে বার্সার নেলসন সেমেদোওকে বাজেভাবে ফাউল করে বসেন। রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজাতে দেরি করেননি। স্পটকিকে দলকে প্রথমবার এগিয়ে দেন মেসি।

আঠারো মিনিট পর মেসির দুর্দান্ত প্রচেষ্টায় দেয়াল হয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে দেননি অতিথি গোলরক্ষক। তবে তার এক মিনিট পরই পাউলিনহোকে আটকাতে পারেননি তিনি। গেটাফের বিপক্ষে জয়সূচক গোল করা এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ডেনিশ সুয়ারেজের কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে মাথা ছুঁয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।

মধ্যবিরতির পর ফিরে বার্সার তৃতীয় গোলের নায়ক ডেনিশ সুয়ারেজ। ৫৩ মিনিটে বক্সের মধ্য থেকে জোরাল শটে গোল আদায় করে নেন কাতালানদের স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে একটি গোল ফিরিয়ে দেয় এইবার। জুনকা রেনের ক্রসে দারুণ ফিনিশিংয়ে সের্জি এনরিচ ব্যবধান কমানো গোলটি এনে দেন। সেটি যেন আরও তাঁতিয়ে দেয় গোলের নেশায় থাকা মেসিকে। পরের তিন মিনিটে দুবার এইবারের জাল খুঁজে নেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

ম্যাচের ৫৯ মিনিটে বল পায়ে কারিকুরি করে এইবারের বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে বোকা বানার মেসি। পরে হ্যাটট্রিক গোলটিতে মিশে থাকল আরও বেশি নৈপুণ্যতা। ৬২ মিনিটে পাউলিনহোর বাড়ানো বলে নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ক্ষিপ্রতায় সঙ্গে প্রতিপক্ষের বক্সে ঢুকে তিন ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন তিনি। যেটি স্প্যানিশ লিগে ২৮তম হ্যাটট্রিকের স্বাদ দেয় মেসিকে। বার্সার হয়ে সব মিলিয়ে মেসির ৩৯তম হ্যাটট্রিক এটি। আর জাতীয় দল হিসেবে নিলে ক্যারিয়ারের ৪৩তম।

হ্যাটট্রিক করেও অবশ্য গোলক্ষুধা কমেনি মেসির। একের পর এক আক্রমণ শানিয়েছেন। তাতে নিজের চতুর্থ গোলটি আসে ৮৭ মিনিটে। বদলি অ্যালেক্স ভিদালের কাটব্যাকে গোলোৎসবের রাতে নিজের হালি পূর্ণ করেন মেসি। চলতি মৌসুমে লিগে যেটি তার নবম গোল। সব মিলিয়ে মৌসুমের ১৬তম গোল।

নতুন মৌসুমে টানা পাঁচ জয়ে ১৫ পয়েন্ট হল শীর্ষে থাকা বার্সার। ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে সেভিয়া। রাতের অন্য ম্যাচে মালাগাকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তিনে ভ্যালেন্সিয়া। পাঁচে চার ম্যাচ খেলা রিয়াল মাদ্রিদ।



২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১১:২১:২৮