মঙ্গলবার | ১১ মে ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডায় শুরু হয়েছে গণহারে ভ্যাকসিন কার্যক্রম
  • কানাডার বিমানবন্দরে বন্দুকধারীর হামলায় একজন নিহত
অন্টারিও প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড...ছবি/ফোর্ড নেশন্স

কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে যা জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি করছে। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যেই কয়েকটি প্রদেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। কানাডার বৃহত্তম প্রদেশ অন্টারিওতে চলছে কঠোর বিধিনিষেধ। এই কড়াকড়ি অনেকেই সহজভাবে মেনে নিতে পারছেন না। এজন্য ক্ষমাও চেয়েছেন অন্টারিও প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড। দৈনিক সংক্রমণ ও আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি বাড়তে থাকায় গত শুক্রবার এ নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করেছে অন্টারিও। এর মধ্যে একটি হলো রাস্তায় জনগণ ও যানবাহনকে আইনসম্মতভাবে থামাতে পুলিশকে ক্ষমতা প্রদান। সেই সঙ্গে কেন তারা বাড়ির বাইরে বেরিয়েছেন পুলিশকে তা বিজ্ঞাসা করার অনুমতি দেওয়া। তবে এ-সংক্রান্ত ঘোষণা করার পরপরই বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা আসায় পরক্ষণেই এ নিয়ে বিৃবতি দেয় পুলিশ বিভাগ। বিবৃতিতে তারা যথেচ্ছভাবে কোনো ব্যক্তি বা যানবাহন থামাবে না বলে জানিয়ে দেয়। এর পরদিন আগের ঘোষণা থেকে সরে আসে সরকার। পাশাপাশি পুলিশকে দেওয়া ক্ষমতায়ও সংশোধনী আনে। সংশোধনীতে কেউ পরিকল্পিত কোনো অনুষ্ঠান বা সামাজিক কোনো জমায়েতে অংশ নিতে যাচ্ছেন বলে সন্দেহ হলেই কেবল পুলিশ তাদেরকে থামাতে পারবে। 

পুলিশের এ ক্ষমতায়ন অনেককেই যে ক্ষুব্ধ করেছে তা স্বীকার করেন ডগ ফোর্ড। তিনি বলেন, এজন্য আমি আবারও দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা চাইছি।

সপ্তাহের শুরুর দিকে প্রিমিয়ারের কার্যালয়ের এক কর্মীর কোভিড-১৯ সনাক্ত হওয়ার পর আইসোলেশনে আছেন ডগ ফোর্ড। ওই অবস্থায় ইটোবিকোকে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে ডগ ফোর্ড বলেন, জনগণের যাতায়াত কমিয়ে আনার কাজে আমরা খুব বেশি তাড়াহুড়ো করে ফেলেছি। এক্ষেত্রে কিছু পদক্ষেপ বিশেষ করে বিধিনিষেধ বাস্তবায়নের জন্য আমাদের অত দূর যাওয়া ঠিক হয়নি। সহজ করে বললে, এটা ভুল হয়েছে। আমরা ভুল করেছি। 

আউটডোরে বিনোদনমূলক কর্মকা-ের ওপর দেওয়া বিধিনিষেধও পরিমার্জন করা হয়েছে। পরিমার্জিত বিধিনিষেধে বলা হয়েছে, খেলার মাঠ খোলা যাবে। তবে গল্ফ কোর্স ও বাস্কেটবল কোর্ট বন্ধই থাকবে। আউটডোর কর্মকা- ভাইরাসের সংক্রমণ হ্রাসে সহায়ক হতে পারে বলে মনে করেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের অনেকেই।



[email protected] Weekly Bengali Times

-->