-3.9 C
Toronto
মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২২

বৌদ্ধ কমিউনিটির প্রতি সৌহার্দ্য

- Advertisement -
বৌদ্ধ কমিউনিটির প্রতি সৌহার্দ্য

আমি বুদ্ধ পূর্নিমা উপলক্ষে বৌদ্ধ কমিউনিটির প্রতি সৌহার্দ্য প্রদশর্নের জন্য গৌতম বুদ্ধের জীবনের উপর অন্য একজনের লেখা আমার ফেসবুকে শেয়ার করেছিলাম। লেখাটির নিচে “সংগৃহীত” কথাটি উল্লেখ করা ছিল।

লেখাটির প্রথম বাক্য ছিল”পৃথিবীতে যদি কোন শান্তিপ্রিয় ধর্ম থেকে থাকে তবে অবশ্যই তা বৌদ্ধ ধর্ম।”

- Advertisement -

এই বাক্যটি নিয়ে কয়েকজন আপত্তি করেছেন। তাদের বক্তব্য হচ্ছে বৌদ্ধ ধর্মই একমাত্র শান্তিপ্রিয় ধর্ম কথাটি ঠিক নয়। আরো অনেক ধর্মই শান্তিপ্রিয়।

আপত্তি উন্থাপনকারীদের একজন যুক্তিসহকারে বেশ সুন্দরভাবেই তার মন্তব্য দিয়েছেন।

অন্য একজন “আমি(রেজাউল ইসলাম) বৌদ্ধ ধর্মের প্রচারণায় নেমেছি, বৌদ্ধ ধর্মে দীক্ষা নিয়েছি ইত্যাদি বিশেষণ সহযোগে জাজমেন্টাল কমেন্ট করেছেন।

কথা হচ্ছে, কেউ যদি তার কমেন্টে আপত্তিকর শব্দচয়ন করে আক্রমণ করার উদ্দেশ্যে মন্তব্য করেন তবে তার মন্তব্য কতটুকু যুক্তিসম্মত এবং গ্রহনযোগ্য হবে?আর এই ধরনের provocating মন্তব্য সহিষ্ণুতার সাথে গ্রহন করা কতটুকুই বা সম্ভব? যাই হোক, এই ধরনের মন্তব্যের উত্তরে ধর্য্যচ্যুতি ঘটা যে কারো পক্ষেই স্বাভাবিক।

পরিশেষে বলবো, সবার কাছে তার নিজ ধর্মকেই অন্য সব ধর্ম থেকে শান্তিপ্রিয় মনে হয়। এই কারনেই সে সেই ধর্মের অনুসারী। অন্য সব ধর্ম থেকে তার ধর্ম তার কাছে শান্তিপ্রিয় মনে না হলে তিনি সেই ধর্মের অনুসারী কেন হবেন?

যার লেখা আমি শেয়ার করেছি তিনি বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারী হয়ে থাকলে তার কাছে তার ধর্ম অন্য সব ধর্মের চেয়ে শান্তিপ্রিয় মনে হতে পারে। তাই তার লেখায় সেটির বর্হিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles