8.8 C
Toronto
শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪

কানাডায় কোলোন ক্যানসার বাড়ছে

কানাডায় কোলোন ক্যানসার বাড়ছে
সব বয়সীদের মধ্যে কোলোন ক্যানসারের হার গত ২০ বছরে ধারাবাহিকভাবে কমে এলেও তরুণ কানাডিয়ানদের মধ্যে রোগটি ব্যাখ্যাতীতভাবে বেড়েছে

বিশপ ব্রিগান্তে যখন প্রথম কেমোথেরাপি সেশন নেন তখন তিনি আশা করেননি যে, আনন্দের সঙ্গে এটার সমাপ্তি হবে। টরন্টো এরিয়ায় বসবাসকারী ৪৫ বছর বয়সী এই শিল্পীরতিন মাস আগে ২০২৩ সালের অক্টোবরে কোলোরেক্টাল ক্যানসার ধরা পড়ে।

পরের মাসগুলোতে অন্টারিও স্বাস্থ্যসেবা খাতের খামতিগুলো ব্রিগান্তের সামনে আসতে থাকে। বহু তরুণকে কোলোরেক্টাল ক্যানসারের প্রাথমিক পরীক্ষা থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছিল। ব্রিগান্তে বলেন, আমি যতই লোকজনের সঙ্গে কথা বলছিলাম, ততই আরও বেশি করে জানতে পারছিলাম। সবারই বক্তব্য ছিল, ‘আমার চিকিৎসক কোলোনস্কপি দেননি’। আমি অনেক বেশি বয়স্ক নই। ৫০ হতে যাচ্ছে। আমার চেয়েও সমস্যাটি আরও বড় বলে বুঝতে পারলাম। তাই আমাকে কার্যকর কিছু একটা করতে হলো।

- Advertisement -

সব বয়সীদের মধ্যে কোলোন ক্যানসারের হার গত ২০ বছরে ধারাবাহিকভাবে কমে এলেও তরুণ কানাডিয়ানদের মধ্যে রোগটি ব্যাখ্যাতীতভাবে বেড়েছে। ব্রিগান্তে বলেন, এস ব্যাপারে আমার কোনো ধারণাই ছিল না। আমি ৩০ ও ৪০ বছর বয়সীদের কথা বলছি। তারাও ব্যাপারটা জানে না। এই ব্যবস্থার এটা বড় একটি সমস্যা।

তাই কোলোনস্কপির সর্বনিম্ন বয়স ৫০ থেকে ৩০ বছরে নামিয়ে আনার জন্য ২৬ জানুয়ারি একটি শুরু করেন তিনি। তিন দিন পর প্রথম কেমোথেরাপি থেকে এসে পিটিশনে ৫ হাজারজনের নাম দেখলেন ব্রিগান্তে। পাঁচদিন পর স্বাক্ষরকারী ১০ হাজারে উন্নীত হলো। ২০ ফেব্রুয়ারি ব্রিগান্তে ও তার পার্টনার মেলানি ম্যাকভে এবং এনডিপির হেলথ ক্রিটিক গেলিনাস কুইন’স পার্কে পিটিশনটি উপস্থাপন করেন। এ সময় এতে স্বাক্ষর ছিল ২৫ হাজার।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles