7.1 C
Toronto
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪

টরন্টোর শরনার্থী সংকট নিরসনে ট্রুডোর প্রতি পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান

টরন্টোর শরনার্থী সংকট নিরসনে ট্রুডোর প্রতি পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান
জাগমিৎ সিং তার চিঠিতে লিখেছেন টরন্টোতে গৃহহীন মানুষের যে সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তা সংকটের পর্যায়ে চলে গেছে যেসব মানুষ নতুন জীবন শুরু করার উদ্দেশে নগরীতে এসেছেন তাদের জন্য পরিস্থিতি কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে

টরন্টোর শরনার্থী সংকট নিসরনে সরকার যাতে পদক্ষেপ নেয় সেই আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর উদ্দেশে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন ফেডারেল এনডিপি নেতা জাগমিৎ সিং। শরনার্থীদের আশ্রয় দিতে বাড়তি যে ব্যয় তা পুষিয়ে নিতে লিবারেল সরকার গত জুলাইয়ে টরন্টোকে ৯ কোটি ৭০ লাখ ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

যদিও টরন্টোর মেয়র অলিভিয়া চাউ বলেছেন, চলতি বছরই নগরীর বাড়তি ১০ কোটি ৩০ লাখ ডলার তহবিল প্রয়োজন। আর ২০২৪, ২০২৫ এবং ২০২৬ সালে প্রয়োজন হবে ২৫ কোটি ডলার।

- Advertisement -

জাগমিৎ সিং তার চিঠিতে লিখেছেন, টরন্টোতে গৃহহীন মানুষের যে সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তা সংকটের পর্যায়ে চলে গেছে। যেসব মানুষ নতুন জীবন শুরু করার উদ্দেশে নগরীতে এসেছেন তাদের জন্য পরিস্থিতি কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। জায়গা না থাকা শেল্টার সেন্টার থেকে ফেরত আসার পর প্রায় সময়ই তাদেরকে রাস্তায় ঘুমাতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রতি রাতে টরন্টোর শেল্টার সিস্টেম থেকে ৩০০ জনের বেশি মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। শীত ক্রমশ জেঁকে বসতে শুরু করায় পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাবে। টরন্টো আরও বেশি আশ্রয় ও গরম স্থানের ব্যবস্থা করতে কাজ করছে। কিন্তু চাহিদা সঙ্গে তা তাল মেলাতে পারছে না। এজন্য সিটি অব টরন্টোর প্রয়োজন ফেডারেল স্তরে অর্থবহ অংশীদার। সংকটের দাবি অনুযায়ী আপনার কাছে আমার অনুরোধ থাকবে জরুরিভিত্তিতে কাজ করার। এই ছুটির মৌসুমে কারোরই রাস্তার ওপর ঘুমানো উচিত নয়।

সিটি কর্তৃপক্ষ বলেছে, টরন্টোর শেল্টার সিস্টেমে আশ্রয় প্রার্থনাকারীদের সংখ্যা প্রায় ২ হাজার ৯০০-তে দাঁড়িয়েছে, আগের দুই বছরের তুলনায় যা ৪৪০ শতাংশ বেশি।

সিটি কর্তৃপক্ষ ৩ কোটি ৪০ লাখ ডলার ব্যয়ে তাদের সিস্টেমে ৫০০ শয্যা যোগ করলেও চাহিদা অনুপাতে তা কম এবং শরনার্থীদের প্রায় সময়ই পিটার স্ট্রিট রেফারেল সেন্টার পাউনটাউনের বাইরে ঘুমাতে হচ্ছে। কারণ, অন্য কোথাও আশ্রয় নেওয়ার সুযোগ তারা পাচ্ছেন না।

জাগমিৎ সিং তার চিঠিতে বলেছেন, প্রতি রাতে টরন্টোর শেল্টার সিস্টেম থেকে ৩০০ জনের বেশি মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সামনের রাতগুলো আরও ঠান্ডা হওয়ায় পরিস্থিতি কেবল খারাপের দিকেই যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। সিটি কর্তৃপক্ষ আশ্রয় ও গরম স্থানের ব্যবস্থা করার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে। কিন্তু ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে আরও সহায়তা প্রয়োজন এজন্য।

This article was written by Sohely Ahmed Sweety as part of the LJI.

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles