আদালতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন ৩ জনের হত্যাকারী রিটেনহাউজ

- Advertisement -
কাইল রিটেনহাউজ

২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে তিনজনকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার কাইল রিটেনহাউজের মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করে এক পর্যায়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন রিটেনহাউজ। তার দাবি, আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায় সে। নীল রঙ্গের স্যুট পরে আদালতে হাজির হয় ১৮ বছর বয়সী কাইল রিটেনহাউজ।

- Advertisement -

স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন প্রদেশের কেনোশা শহরের আদালতে এই শুনানি হয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০২০ সালে উইসকনসিনে পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে তিনজনকে হত্যা করে সে।

শুনানিতে সরকার পক্ষের আইনজীবীর একের পর এক প্রশ্নবাণে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে রিটেনহাউজ। আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করে রিটেনহাউজ জানায়, বিক্ষোভ চলাকালে কয়েকজনের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে সে।

এক পর্যায়ে তাকে আক্রমণ করতে এলে নিজের কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র বের করে রিটেনহাউজ। আর শুধুমাত্র আত্মরক্ষার্থেই গুলি চালাতে বাধ্য হয় সে।

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীর অভিযোগ, রিটেনহাউজের কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্রটি ছিলো অবৈধ। বিক্ষোভে অস্ত্র বের না করলে হতাহতের ঘটনা ঘটতো না বলেও দাবি করেন তিনি।

এদিকে, উইসকনসিন হত্যাকাণ্ড নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে মার্কিন নাগরিকদের মধ্যে। কেউ বলছেন, রিটেনহাউজ একজন দেশপ্রেমিক। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতেই গুলি চালায় সে। আবার অনেকে বলছেন, রিটেনহাউজ চাইলেই এড়াতে পারতো এই হত্যাকাণ্ড।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles