6.1 C
Toronto
সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪

লিঙ্গ পরিবর্তনের পরও বিয়ে করতে না পারায় বন্ধুকে খুন

লিঙ্গ পরিবর্তনের পরও বিয়ে করতে না পারায় বন্ধুকে খুন
সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার নন্দিনি বাঁয়ে ও লিঙ্গ পরিবর্তন করার পর মহেশ্বরী

জন্মদিনের রাতেই খুন হতে হলো ২৪ বছর বয়সী সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার নন্দিনিকে। তাও আবার প্রিয় বন্ধুর হাতেই। খুন করার আগে অবর্ণনীয় নির্যাতন করা হয় নন্দিনিকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জন্মদিনে সারপ্রাইজ দেওয়ার কথা বলে নন্দিনিকে চোখ বেঁধে নিয়ে যায় ২৬ বছরের পন্ডি মহেশ্বরী। এরপর তাকে শেকল দিয়ে বেঁধে ফেলেন তিনি। ব্লেড দিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করা হয় তার শরীর। একটা সময় পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করেন নন্দিনিকে।

- Advertisement -

পুলিশ জানিয়েছে, নন্দিনি ও মহেশ্বরী ভালো বন্ধু ছিলেন। তারা চেন্নাইয়ে একসঙ্গেই থাকতেন। মহেশ্বরী চাইতেন নন্দিনিকে বিয়ে করতে। সেজন্য অস্ত্রোপচার করে লিঙ্গও পরিবর্তন করেছিলেন তিনি।

থামবারাম পুলিশ কমিশনার অমলরাজ বলেন, ‘তারা ভালো বন্ধু ছিলেন এবং চেন্নাইয়ে একসঙ্গে থাকতেন। তবে খুনে আগে যৌন সহিংসতার কোনো আলামত এখনো পাওয়া যায়নি।’

জানা গেছে, লিঙ্গ পরিবর্তন করার পরও মহেশ্বরীকে সঙ্গে বন্ধুত্ব বজায় রেখেছিলেন নন্দিনি। তারা দুজনই একটি বেসরকারি আইটি ফার্মে কাজ করতেন। পুলিশের ধারণা, নন্দিনি অন্য কারও সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হচ্ছেন—এমন সন্দেহ থেকে মহেশ্বরী আগ্রাসী হয়ে ওঠেন।

স্থানীয়রা যখন নন্দিনিকে উদ্ধার করে তখনও তিনি শেকল দিয়ে বাঁধা ছিলেন। গায়ে আগুন জ্বলছিল। এ ঘটনার পর মহেশ্বরীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে খুনে মামলা করা হয়েছে

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles