22.1 C
Toronto
বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

পানির নিচে থাকা নতুন এক মহাদেশ আবিষ্কার

পানির নিচে থাকা নতুন এক মহাদেশ আবিষ্কার

নতুন মহাদেশ আবিষ্কারের দাবি করলেন বিজ্ঞানীরা। ভূবিজ্ঞানীরা বলছেন, তারা এমন একটি মহাদেশ আবিষ্কার করেছেন যা প্রায় ৩৭৫ বছর ধরে লুকায়িত অবস্থায় ছিল। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

- Advertisement -

প্রতিবেদনে বলা হয়, জিওলজিস্ট ও সিসমোলজিস্টদের একটি দল এই ভূখণ্ড আবিষ্কার করেছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে জিল্যান্ডিয়া।

সমুদ্রের তলদেশে পাওয়া পাথরের নমুনা গবেষণা করে এই জায়গার সন্ধান পেয়েছেন গবেষকরা। বিজ্ঞানভিত্তিক জার্নাল টেকটনিকসে প্রকাশিত গবেষণা প্রবন্ধে তারা এর বিস্তারিত তুলে ধরেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, জিল্যান্ডিয়া নামে এই মহাদেশের আয়তন ৪৯ লাখ বর্গ কিলোমিটার। মাদাগাস্কারের চেয়েও এটি ছয়গুণ বড়।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ‘এখন বিশ্বে আটটি মহাদেশ। একটি নতুন, ছোট, পাতলা এবং কনিষ্ঠতম মহাদেশ পেয়েছি আমরা।’ নিউজিল্যান্ড ক্রাউন রিসার্চ ইনস্টিটিউটের ভূতত্ত্ববিদ অ্যান্ডি তুলোস বলেন, নতুন মহাদেশের ৯৪ শতাংশই পানির নিচে। নিউ জিল্যান্ডের মতো অল্প কিছু দ্বীপ আছে পানির ওপরে।

তারা বলছেন, জিলান্ডিয়া নিয়ে গবেষণা করা খুবই কঠিন। বিজ্ঞানীরা সমুদ্রের তলদেশ থেকে পাথর তুলে নিয়ে এসে গবেষণা করছেন।

ফিজ ডট ওআরজির প্রতিবেদনে বলা হয়, পাথরের নমুনা গবেষণা করে পশ্চিম অ্যান্টার্কটিকার নিদর্শন পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তবে কোনো চৌম্বকীয় অস্বাভাবিকতা পাওয়া যায়নি। প্রাচীন বৃহৎ মহাদেশ গোন্ডায়ার অংশবিশেষ জিল্যান্ডিয়া। ৫৫ কোটি বছর আগে গোন্ডয়ার অস্তিত্ব ছিল বলে ধারণা বিজ্ঞানীদের।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles