14.1 C
Toronto
রবিবার, মে ২৬, ২০২৪

৩০ বছরে ১২ যুবককে বিয়ে, এরপর…

৩০ বছরে ১২ যুবককে বিয়ে, এরপর...
অভিযুক্ত নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে

বিয়েকেই তিনি যেন পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন! ৩০ বছর বয়সী এক নারীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ সামনে এসেছে। ইতিমধ্যে ওই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের জম্মু-কাশ্মিরের ওই নারীর প্রকৃত নাম শাহিন আক্তার। গত সপ্তাহে রাজৌরির নওশেরাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মোহাম্মদ আলতাফ মীরের অভিযোগের ভিত্তিতে শাহিন আক্তার এখন জেলে আছেন। আলতাফ অভিযোগ করেন, বিয়ের পর প্রতারণা করেছেন শাহিন।

- Advertisement -

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, গত ৫ জুলাই আলতাফ অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরেই শাহিন আক্তারের কুকীর্তি ফাঁস হতে থাকে। আলতাফ ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজন ব্যক্তি শাহীন আক্তারের নামে অভিযোগ দায়ের করেন।

আলতাফ তার অভিযোগে জানান, তৃতীয় এক ব্যক্তি শাহিন আক্তারের সঙ্গে পরিচয় করে দেয়। এরপর তারা বিয়ে করে একসঙ্গে থাকা শুরু করেন। কিন্তু বিয়ের চার মাস পরেই শাহিন সোনা ও নগদ টাকা নিয়ে চম্পট দেয়।

আলতাফের অভিযোগের ভিত্তিতেই শাহীন গত ১৪ জুলাই গ্রেপ্তার হন। একই দিনে একদল ব্যক্তি বুরগাম আদালত প্রাঙ্গণে আসেন যখন শাহিনের শুনানি চলছিল। তারা দাবি করেন, শাহিন তাদের বিয়ে করে তাদেরও টাকা, সোনা-দানা নিয়ে পালিয়েছে।

ফার্স্ট পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অভিযুক্ত ওই নারী একে একে ১২ জনকে বিয়ে করেছেন এবং তাদের সোনা-অর্থ নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles