12.9 C
Toronto
রবিবার, মে ২৬, ২০২৪

‘চিকিৎসার খরচের বিনিময়ে শারীরিক সম্পর্ক চান’

‘চিকিৎসার খরচের বিনিময়ে শারীরিক সম্পর্ক চান’
ব্রিজভূষণ ও নারী কুস্তিগিররা ছবি সংগৃহীত

গত কয়েক মাস ধরে ভারতীয় কুস্তি ফেডারেশন নিয়ে ঝামেলা চলছেই। যেখানে সংস্থার সভাপতি ব্রিজভূষণ শরণ সিংহের বিরুদ্ধে নারী কুস্তিগিরদের সঙ্গে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠে। এ নিয়েই উত্তাল কুস্তিগিররা। ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে এবার নতুন অভিযোগ, তিনি নাকি এক নারী কুস্তিগিরের চিকিৎসার খরচ দেওয়ার বদলে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চেয়েছিলেন। এ ছাড়া সাপ্লিমেন্ট দেওয়ার নামেও অন্য এক কুস্তিগিরের সঙ্গেও শারীরিক সম্পর্ক করতে চেয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

রাজধানী দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টে ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে ১৬০০ পাতার চার্জশিট জমা দিয়েছে দিল্লি পুলিশ। সেখানেই এই নতুন অভিযোগের কথা জানা গিয়েছে। যেখানে এক নালী কুস্তিগির অভিযোগ করেন, ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় চোট পেয়েছিলেন তিনি। কুস্তির আখড়ায় ফেরার জন্য চিকিৎসার প্রয়োজন ছিল। দেশে ফেরার পরে ফেডারেশনের দপ্তরে তাকে দেখা করতে বলেন ব্রিজভূষণ। সেখানে তিনি প্রস্তাব দেন যে ফেডারেশন ওই কুস্তিগিরের চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে। কিন্তু তার বদলে কুস্তিগিরকে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে হবে। এ কথা শুনেই ফেডারেশনের দপ্তর থেকে চলে যান ওই কুস্তিগির।

- Advertisement -

এছাড়া আরও এক জন কুস্তিগির অভিযোগ করেন, ব্রিজভূষণ তাকে সাপ্লিমেন্ট কিনে দেওয়ার কথা বলেছিলেন। কুস্তিগিরের অভিযোগ, ২০১২ সালের নভেম্বর মাসে ব্রিজভূষণ তাকে এই প্রস্তাব দেন। সাপ্লিমেন্টের বদলে কুস্তিগিরের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চান এই কর্মকর্তা।

এদিকে প্রস্তাবে রাজি না হলে ব্রিজভূষণ হুমকি দিতেন বলেও অভিযোগ করেছেন কুস্তিগিরেরা। ব্রিজভূষণের কয়েক জন ঘনিষ্ঠের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা হয়েছে। তারা নাকি কুস্তিগিরদের ফোন করে তাদের ব্রিজভূষণের সঙ্গে একা দেখা করতে বলতেন। তারপরে তাদের ক্ষমা চাওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হত। ক্ষমা না চাইলে কুস্তিগিরদের শো-কজ নোটিস ধরাতেন ব্রিজভূষণ। যদিও তদন্তকারী কমিটির সামনে নিজের সাফাইয়ে ব্রিজভূষণ জানিয়েছেন কোনও প্রতিযোগিতা বা তার ট্রায়ালে কুস্তিগিরদের সঙ্গে দেখা হত তার। আলাদা করে তাঁর অফিসে বা বাড়িতে কারও সঙ্গে দেখা করেননি তিনি।

কুস্তিগিরেরা অবশ্য তদন্তকারী কমিটির ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তাদের অভিযোগ, মেরি কমের নেতৃত্বাধীন কমিটি তাদের বলেছে, ব্রিজভূষণ কোনও দিন খারাপ মনোভাব থেকে কিছু করেননি। কুস্তিগিরেরাই তাকে ভুল বুঝেছেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles