27.8 C
Toronto
শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪

‘কিছু মানুষের আচরণে খুব কষ্ট পেয়েছি’

‘কিছু মানুষের আচরণে খুব কষ্ট পেয়েছি’
<br >পরীমণি

২০১৬ সালে চলচ্চিত্রের অসচ্ছল সহশিল্পীদের জন্য প্রথমবারের মতো এফডিসিতে কোরবানি দেন আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি। এরপর থেকেই নিয়মিতই তিনি এফডিসিতে একের অধিক গরু কোরবানি দিয়ে আসছেন। আর সেই কোরবানির মাংস তিনি বিতরণ করেন চলচ্চিত্রের অসচ্ছল সহশিল্পীদের মাঝে।

২০২১ সালে পরীকে এফডিসির ভেতর কোরবানি দিতে দেওয়া হয়নি। তাই এফডিসির বাইরেই তিনি ৬টি গরু কোরবানি দেন। সেসময় থেকে এফডিসির জন্য না, নিজের পরিবারের জন্য কোরবানি দিচ্ছেন বিশ্বসুন্দরী’খ্যাত এই অভিনেত্রী। এবারও তাই করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

পরীর ভাষ্য, ‘আর কদিন বাদেই ঈদুল আজহা। অবশ্যই কোরবানি দেব। তবে এফডিসির জন্য নয়, এবারও নিজের পরিবারের জন্য।’

আরও পড়ুন: ‘আমি তোমার ওই সব প্রেমিকাদের মতো নই’, কার উদ্দেশে লিখলেন পরীমণি?

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কিছু সহকর্মীর নেতিবাচক আচরণের কারণেই মনের ভেতর ক্ষোভ জমেছে পরীর। আর ক্ষোভ থেকেই পরীর এমন সিদ্ধান্ত। এফডিসিতে ২০২১ সালের পর থেকে আর কোরবানি দেন না এই চিত্রনায়িকা।

এফডিসিতে কোরবানি না দেওয়ার পেছনে ‘ক্ষোভ’ কী মূল কারণ? এমন প্রশ্নের উত্তরে পরীমণি বলেন, ‘না, বিশেষ কোনো কারণ নেই। এই শিল্পের সঙ্গে আমার আত্মার সম্পর্ক। তবে এখানকার কিছু মানুষের আচরণে খুব কষ্ট পেয়েছি। যা প্রকাশ করার মতো না। আর এখন তো এফডিসিতে কোরবানি দেওয়ার নিয়মও নাই। সব মিলিয়েই এফডিসি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছি। দেখবনে- এখন অসচ্ছল সহকর্মীদের জন্য কিছু করার হলে এফডিসির বাইরে গিয়ে করি। আর যারা আমাকে ভালোবাসে তারা সরাসরি আমার সঙ্গেই যোগাযোগ করেন। আমি চেষ্টা করি তাদের পাশে থাকতে।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles