22.3 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

এবার নোবেলের ‘প্রাক্তন’ স্ত্রীকে গুমের হুমকি

এবার নোবেলের ‘প্রাক্তন’ স্ত্রীকে গুমের হুমকি
সালসাবিল মাহমুদ ও মাইনুল আহসান নোবেল

মাদকের কারণে গেল ৪ মে সমালোচিত কণ্ঠশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেলকে তালাক দেওয়ার কথা জানান স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ। সেসময় তিনি ফেসবুকে দীর্ঘ এক স্ট্যাটাস দেন। যেখানে সালসাবিল দাবি করেন, নোবেলের মাদকাসক্ত হওয়ার পেছনে অনেকে ক্ষমতাশালী মানুষদের অবদান আছে।

সেই স্ট্যাটাসের পরই সালসাবিলকে ‘গুমের হুমকি’ দেওয়া হয়। আর সেটি তিনি জানান ফেসবুকে। শুক্রবার ‘গুমের হুমকি’ পাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, ‘২৪ ঘণ্টা আর ক্ষমতাধর ড্রাগ মাফিয়াদের থেকে শ খানেক কল; আমি নাকি কত বড় ভুল করে ফেলেছি আমি নিজেও জানি না। আমাকে গুম করা তাদের দুই মিনিটেরও বিষয় না। কোনো আইন তাদের কিছু করতে পারবে না। আইন তারা পকেটে রাখে।’

- Advertisement -

তিনি আরও লিখেছেন, ‘উল্লেখযোগ্য যে কথাগুলো আমাকে বলা হলো; তোমাদের পারসনাল বিষয় পর্যন্ত ঠিক ছিল, এর বেশি তুমি কেনো কথা বলতে গেলা? তুমি কেন এসব নিয়ে কথা বলতে গেছ? যদি আমাদের কারো নাম সামনে আসে- তোমাকে রাস্তায় শুট করা হবে। না হলে ২ মিনিটে গুম করে দেওয়া হবে।’

এদিকে, নোবেলের সঙ্গে বিচ্ছেদের বিষয়ে সালসাবিল লিখেছেন, ‘আমি হয়তোবা আগে ক্লিয়ার করিনি ব্যাপারটা যেহেতু আমরা দুজনেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ডিভোর্স রেজিষ্ট্রেশনটা উকিলকে বলে হোল্ডে রেখেছিলাম। কিন্তু সাম্প্রতিক কিছু ঘটনার পরও যখন আমার ও নোবেলের কথা হয় আমি তাকে শেষবারের মতো মাদকদ্রব্য ছাড়ার কথা এবং চিকিৎসা নেবার জন্য জিজ্ঞেস করি। সে পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দেয়, সে কখনো মাদক ছাড়বে না এবং বলে, “নেশা ছাড়লে তো আগেই ছাড়তাম লল”, এরপর আমি আমার পারিবারিক সিদ্ধান্তে আমার ডিভোর্স রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করি।’

নোবেলের মাদকাসক্তের পেছনে অনেকের হাত আছে উল্লেখ করে তিনি লিখেন, ‘নোবেল কখনোই এতো অসুস্থ ছিল না। এমন না যে নোবেলের আজকের এই অবস্থার জন্য ও শুধু একা দায়ী। অবশ্যই সে নিজেই সবচেয়ে বেশি দায়ী, কিন্তু তার মাদকদ্রব্য প্রাপ্তি ও আসক্তির ক্ষেত্রে অনেক ক্ষমতাশালী মানুষদের অবদান আছে।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles