15 C
Toronto
শনিবার, মে ১৮, ২০২৪

মূল্যস্ফীতি কমলেও স্বস্তিতে নেই সরকার

মূল্যস্ফীতি কমলেও স্বস্তিতে নেই সরকার
কানাডার মূল্যস্ফীতির হার গত মাসে আরেক দফা কমেছে

কানাডার মূল্যস্ফীতির হার গত মাসে আরেক দফা কমেছে। তারপরও বহু কানাডিয়ান এখনো জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহে হিমশিম খাচ্ছে। ফলে আগামী বাজেটে এ সংক্রান্ত আরও বরাদ্দ রাখার চাপে রয়েছে ফেডারেল সরকার।

স্ট্যাটিস্টিকস কানাডা ফেব্রুয়ারি মাসের ভোক্তা মূল্যসূচক সংক্রান্ত প্রতিবেদন মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে। ২৮ মার্চ ফেডারেল সরকারের বাজেটের আগে এটাই সর্বশেষ মূল্যস্ফীতির তথ্য।

- Advertisement -

ডেজারডিনস এবং আরবিসি উভয়েই বলছে, গত মাসে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৪ শতাংমে নেমে এসেছে। জানুয়ারি মাসে যেখানে মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৫ দশমিক ৯ শতাংশ। মূল্যস্ফীতির হার কমলেও ফেডারেল সরকার এখনো যারা জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহ করতে পারছেন না তাদের ক্রয়ক্ষমতা বাড়াতে বাজেটে পদক্ষেপ নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে।

ডেজারডিন্সের প্রধান অর্থনীতিবিদ জিমি জিন বলেন, আর্থিক সীমবাদ্ধতার সঙ্গে ক্রয়ক্ষমতার অগ্রাধিকারে অটোয়া কীভাবে ভারসাম্য আনে সবার দৃষ্টি এখন সেদিকে। একটা জিনিস আমরা পরিস্কার দেখতে পাচ্ছি এবং তা হলো জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির চাপ কমাতে সহায়তা।

মূল্যস্ফীতির হার নির্ধারিত ২ শতাংশে নামিয়ে আনার ব্যাপারে ব্যাংক কানাডা এখন অতটা মনোযোগী নয়। সুদের হার বৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণ ও ব্যবসার ব্যয় কমানোর মধ্য দিয়ে অর্থনীতি শ্লথ হতে শুরু করেছে। অর্থনীতি শ্লথ হলেও সরকারের বাড়তি পদক্ষেপ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ উদ্যোগকে ব্যর্থ করে দিতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা। বাধ্য হয়ে আবারও সুদের হার বৃদ্ধির পথে হাঁটতে হতে পারে ব্যাংক অব কানাডাকে।

কানাডায় মূল্যস্ফীতি সর্বোচ্চ ছিল গত গ্রীষ্মে ৮ দশমিক ১ শতাংশ। কিন্তু সুদের হার বৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির বৈশি^ক চাপ কমতির দিকে থাকায় ধীরে ধীরে এটা সহনীয় হয়ে আসছে। গত জানুয়ারিতে গ্রোসারি পণ্যের দাম এক বছর আগের একই সময়ের তুলনায় ১১ দশমিক ৪ শতাংশ বেশি ছিল।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles