6.6 C
Toronto
বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

মধ্যরাতে শাকিবের হোটেল কক্ষে নারী কী করছিলেন? প্রশ্ন বুবলীর

মধ্যরাতে শাকিবের হোটেল কক্ষে নারী কী করছিলেন? প্রশ্ন বুবলীর

ধর্ষণের অভিযোগ ইস্যুতে এবার সরাসরি সাবেক স্বামী শাকিব খানের পক্ষে কথা বললেন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। প্রযোজক রহমত উল্লাহর অভিযোগ, অস্ট্রেলিয়ায় ‘অপারেশন অগ্নিপথ’-এর শুটিংয়ে গিয়ে ২০১৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর রাত ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কিং খান এক নারী সহ-প্রযোজককে ধর্ষণ করেন। সেই প্রসঙ্গ টেনে বুবলীর প্রশ্ন, মধ্যরাতে শাকিবের হোটেল কক্ষে নারী কী করছিলেন?

- Advertisement -

সোমবার বিকালে বর্তমান সময়ের অন্যতম ব্যস্ত এই নায়িকা তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লম্বা একটি পোস্ট দিয়ে এই প্রশ্ন তুলেছেন। ঢাকাটাইমস পাঠকদের জন্য বুবলীর সেই স্টাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘শাকিব খান একজন অভিনয়শিল্পী যে কিনা প্রায় ২৪ বছর এই বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জন্য কাজ করেছেন, অসংখ্য ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন, অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন, সিনেমা নিয়ে ভেবেছেন। হঠাৎ করে বিভিন্ন ধরনের ইস্যু এনে তাকে নিয়ে নানান বিতর্কের সৃষ্টি করা হচ্ছে!’

‘অনেক বছর আগের ‘অপারেশন অগ্নিপথ’ নামের একটি সিনেমার শুটিং চলাকালীন শাকিব খানের ব্যাপারে বিস্তর তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকে নিজেকে প্রডিউসার দাবি করে এক ব্যক্তি তাকে নিয়ে নানান অভিযোগ করছেন…। আচ্ছা শুটিং চলাকালীন এতো এতো অভিযাগ যখন টের পেয়েছিল উনারা, তাহলে কেনো তখন তাকে বাদ দেওয়া হলো না? সমিতিগুলোতে অভিযোগ করা হলো না? দু’পক্ষের কথা শোনা হলো না?’

‘২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ায় ‘অপারেশন অগ্নিপথ’-এর শুটিংয়ের পর ২০১৮ সালে শাকিব খান তার ‘সুপার হিরো’ নামের আরেকটি সিনেমার শুটিং সম্মানের সাথে প্রায় ২০ দিনে অস্ট্রেলিয়া থেকে শেষ করে আসেন। উনি যদি কোনো ব্যাপারে দোষী থাকতেন তাহলে তো অস্ট্রেলিয়ান পুলিশ তাকে তখন শুটিংয়ের অনুমতিই দিতেন না। শাকিব খান নিজেও অস্ট্রেলিয়া যেতেন না।’..

‘তার খাবার খাওয়া নিয়ে বলা হচ্ছে। উনি কি ডায়মন্ডের খাবার খেতেন যেটা নিয়েও অভিযোগ যে, অনেক ব্যয়বহুল হতো! মধ্যরাতে তার হোটেল রুমে নারী সংক্রান্ত ইস্যু নিয়ে বলা হচ্ছে, মধ্যরাতে তার হোটেল কক্ষে নারী কী করছিলেন? কী তার বা তাদের উদ্দেশ্য ছিল?’

‘এতো বছর কেন ওসব ঘটনা নিয়ে সেই নারী প্রকাশ্যে কথা বললেন না! এখন কেন এই প্রডিউসার দাবি করা ব্যক্তি অস্থির হয়ে গেলেন? আর দেশে হোক বা বিদেশে! যে কেউ যে কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ করতেই পারে। খাতায় নাম উঠতেই পারে। কিন্তু আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে, উভয় পক্ষের প্রমাণাদি নিয়ে।’

‘কথা হলো, হঠাৎ এতো অভিযোগের ভান্ডার কেন? কী চাচ্ছে? শিডিউল? মুভি শেষ করে দেওয়া? আমার জানা মতে, শাকিব খান ‘অপারেশন অগ্নিপথ’-এর শিডিউল কয়েক বারই দিয়েছেন। কিন্তু শুটিং হয়নি। এখনো যদি শিডিউল চাওয়া হয় সিনেমা শেষ করতে, উনি অবশ্যই শিডিউল দিবেন। কারণ সে পেশাগত জায়গায় যথেষ্ট ডেডিকেটেড। তা না হলে ২৪ বছর ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে পারতেন না। কারণ একজন সফল শিল্পী একদিনে তৈরি হয় না।’

‘কয়েক বছর ধরে দেখছি, একটা চক্র কিছুদিন পর পরই শাকিব খানকে নিয়ে ওঠেপড়ে লাগে। নানা চক্রান্তে মেতে ওঠে। বিষয়টা যেন এমন, তাকে হটিয়ে দিতে পারলেই আমরা রাজা। কিন্তু তার লাখো কোটি ভক্তরা কখনোই তা হতে দেয়নি। দিবেও না। সবসময়ই তারা তাকে আগলে রাখে। শক্তি দিয়ে এগিয়ে নেয়।’

Just remember, Once a king always a king!

Once a superstar always a superstar!!

এর আগে রবিবার অন্য আরেকটি পোস্টে বুবলী ২০১৮ সালে শাকিব খানের সঙ্গে তার অস্ট্রেলিয়া ভ্রমণের মধুর স্মৃতি তুলে ধরেন। সে সময় তারা দেশটিতে ‘সুপারহিরো’ ছবিটির শুটিং করছিলেন। শাকিব খান ও অস্ট্রেলিয়া সরকারের কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে তোলা কয়েকটি ছবিও পোস্ট করেন নায়িকা।

ওই পোস্টে শাকিব খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে একটা শব্দও লেখেননি বুবলী। তবে পরোক্ষভাবে এটা বুঝিয়ে দেন, কিং খানের বিরুদ্ধে যদি সত্যি ধর্ষণের মতো কোনো অভিযোগ থাকতো, তবে তারা কোনো ভাবেই অস্ট্রেলিয়ায় শুটিংয়ের অনুমতি পেতেন না এবং দেশটির সরকার তাদের সার্বিক ব্যাপারে সহযোগিতাও করত না।

সূত্র : ঢাকাটাইমস

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles