9.3 C
Toronto
রবিবার, মার্চ ২৬, ২০২৩

কানাডায় পাসপোর্টের আবেদনের স্তুপ আর নেই

কানাডায় পাসপোর্টের আবেদনের স্তুপ আর নেই
সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী ক্যাটরিনা গোল্ড বলেছেন ৯৮ শতাংশ বিলম্বিত পাসপোর্ট আবেদন প্রক্রিয়া করা হয়েছে

অনিষ্পন্ন পাসপোর্ট আবেদনের যে স্তুপ তৈরি হয়েছিল তা আর নেই বলে ঘোষণা দিয়েছে ফেডারেল সরকার। সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী ক্যাটরিনা গোল্ড বলেছেন, ৯৮ শতাংশ বিলম্বিত পাসপোর্ট আবেদন প্রক্রিয়া করা হয়েছে।

অধিকাংশ নতুন আবেদন অক্টোবর থেকে যথাসময়ে প্রক্রিয়াকরণ করা হচ্ছে। তবে এর আগে আবেদন করা হাজারো আবেদনকারীকে অনেক বেশি বিলম্বের মুখে পড়তে হচ্ছে। তবে এই বিলম্বের অবশেষে অবসান হয়েছে বলে জানিয়েছেন সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী। অন্টারিওর হ্যামিল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, অনিষ্পন্ন আবেদনের স্তুপ কার্যত আর নেই।
মহামারি প্রায় দুই বছর পাসপোর্ট আবেদন কমে যায়। তবে লোকজন ভ্রমণ করতে শুরু করায় নতুন পাসপোর্টের চাহিদা নাটকীয়ভাবে বেড়ে যায়। এর ফলে ভ্রমণ সংক্রান্ত কাগজপত্র পেতে লোকজনকে দীর্ঘ লাইনে লম্বা সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়।

- Advertisement -

বিলম্বের জন্য ক্ষমা চেয়ে গোল্ড বলেন, গত গ্রীষ্মে যারা আবেদন করেছিলেন তাদেরও অনেকে এখন পাসপোর্ট পাচ্ছেন। তবে এখনো যাদেরকে অপেক্ষা করতে হচ্ছে তাদের অন্যান্য কারণ থাকতে পারে। চাইল্ড কাস্টডি ইস্যুর কারণে কিছু আবেদন বেশ জটিল। অন্যদের বেলায় যোগ্যতা বা সততার প্রশ্ন রয়েছে। আবেদনের সবকিছু ঠিক থাকলে কানাডিয়ানরা যে নির্ধারিত সময়ে পাসপোর্ট পেতে পারেন সে ব্যাপারে তাদের আস্থা থাকা উচিত।

আবেদনের স্তুপ কমাতে পাসপোর্ট প্রক্রিয়াকরণে নিয়োজিত কর্মীর সংখ্যা গত মার্চ থেকে দ্বিগুন করেছে সার্ভিস কানাডা। সেই সঙ্গে কর্মীরা অতিরিক্ত সময় কাজও করেছেন। ভবিষ্যতে চাহিদা বাড়লে তা সামাল দিতে নতুন কর্মীরা থেকে যাবেন বলে আশা করছেন গোল্ড।

তিনি বলেন, আগামী কয়েক বছর বিপুল সংখ্যক কানাডিয়ান পাসপোর্টের আবেদন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। কারণ, ১০ বছরের জন্য ইস্যু করা প্রথম পাসপোর্টের নবায়ন জুলাইয়ে শুরু হবে। এই বছর ৩৫ লাখ পাসপোর্ট প্রক্রিয়াকরণের আশা করছে সার্ভিস কানাডা, যা আগের বছরের দ্বিগুন। আগামী কয়েক বছরে বার্ষিক ৩০ থেকে ৫০ লাখ পাসপোর্টের আবেদন আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আশার কথা হলো সার্ভিস কানাডা এই চাহিদা ভালোভাবেই সামাল দিতে পারবে, যেটা গত বসন্তে ছিল না তাদের। গত বছর ৮০ থেকে ৮৫ শতাংশ আবেদন আসে তাদের কাছ থেকে, যাদের আগে কখনোই পাসপোর্ট ছিল না। এর অর্থ হচ্ছে এগুলোর প্রক্রিয়াকরণ বেশ জটিল।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles