-5.3 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০২৩

যে স্কুলের সব ছাত্রী কিশোরী মা

যে স্কুলের সব ছাত্রী কিশোরী মা

নির্মল পরিবেশ। প্রাচীরে ঘেরা একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ফটকের বাইরে উড়ছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পতাকা। দেয়ালে সাঁটানো ব্যানারে লেখা- লিংকন পার্ক হাই স্কুল। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের এই স্কুল অন্য আর ১০টি স্কুলের মতো নয়। এখানকার ছাত্রীদের মধ্যে অনেকেরই সন্তান রয়েছে, কেউ আবার অন্তঃসত্ত্বা।

- Advertisement -

যদিও তাদের বয়স ১৪ থেকে ১৯-এর মধ্যে। সন্তানদের রাখার জন্য রয়েছে আলাদা স্থান। স্কুলটি গড়ে তোলা হয়েছে বিশেষ এক উদ্দেশ্যে। নানা পরিস্থিতিতে যারা অন্তঃসত্ত্বা কিংবা সন্তান জন্ম দিয়েছে, তারা যাতে কিশোর বয়সেই শিক্ষা থেকে ঝরে না পড়ে, সেজন্যই গড়ে তোলা হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

স্কুলটির ছাত্রীদের মধ্যে ১৫ বছর বয়সী হেলেন একজন। ২০২১ সালের প্রথম দিকে হঠাৎ সে বেশি খাচ্ছে, এমন অনুভব করে। কিন্তু কী কারণে এমনটি হচ্ছে তা বুঝতে পারেনি। এরই মধ্যে তার মাসিক বন্ধ হয়ে যায়। পরে নিজের জন্মদিনে জানতে পারে সে অন্তঃসত্ত্বা। হেলেন বলে, এটি শোনার পর সে বিশ্বাস করতে পারছিল না।

বিষয়টা জানাজানি হলে তার বন্ধুরা কথা বলা বন্ধ করে দেয় এবং বলে, ছেলেকে বশে আনতেই সে এ কাজ করেছে। অনাগত সন্তানের বাবা তারই সহপাঠী। সেও তার সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেয়। এরপর নানা জনের নানা কথায় সে অবশেষে ওই স্কুল ছেড়ে দিয়ে এ স্কুলে ভর্তি হয়।

শুধু হেলেনই নয়, অনেকেই স্কুল পরিবর্তন করে এখানে শিক্ষা নিচ্ছে। এখানে নিজের শিক্ষার পাশাপাশি সন্তানেরও খেয়াল রাখতে হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির দেয়ালে সাঁটানো পোস্টারে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় কীভাবে চলতে হবে সে সংক্রান্ত নিয়মকানুন লেখা রয়েছে। মূল ভবনের পাশেই শিশুদের রাখার জন্য ডে কেয়ার সেন্টার। এখানে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের অধিকাংশের বয়স ১৪ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে। স্কুলটিতে ৭০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। অনেকেই সন্তান জন্মদানের পরে আগের স্কুলে ফিরে যায়।

সূত্র : বিবিসি।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles