11.3 C
Toronto
শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

ইগলিনটন ক্রসটাউনের বিলম্বে ক্ষতি হচ্ছে ব্যবসার

ইগলিনটন ক্রসটাউনের বিলম্বে ক্ষতি হচ্ছে ব্যবসার
ইগলিনটন ক্রসটাউনের কাজে বিলম্ব ছোট ব্যবসার আরও ক্ষতি ডেকে আনবে বলে জানিয়েছেন ইগলিনটন ওয়ে বিআইএর চেয়ার মৌরিন সিরোইস

ইগলিনটন ক্রসটাউনের কাজে বিলম্ব ছোট ব্যবসার আরও ক্ষতি ডেকে আনবে বলে জানিয়েছেন ইগলিনটন ওয়ে বিআইএর চেয়ার মৌরিন সিরোইস। দীর্ঘমেয়াদী অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্পের কারণে এমনিতেই ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে ছোট ব্যবসা প্রতিষ্টানগুলোকে।

মৌরিন সিরোইস সিপি২৪কে বলেন, মেট্রোলিংকসের ঘোষণায় ইগলিনটনের ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকদের অনেকেই হতাশ। কারণ, সেপ্টেম্বরে প্রকল্পের কাজ শেষ করার যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল তা রক্ষা করা সম্ভব হচ্ছে না। আরও সময় লাগাটা ক্ষোভের। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিলম্ব হচ্ছে। এটা সত্যিই হতাশার এবং লোকজন এ নিয়ে বিরক্ত।

- Advertisement -

কবে নাগাদ এলআরটির কাজ শেষ হবে সে সম্পর্কে নতুন কোনো তারিখ ঘোষণা করেনি মেট্রোলিংকস।

সিরোইস বলেন, ২০১১ সালে প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কিন্তু মেট্রোলিংকসের তরফ থেকে প্রত্যক্ষ কোনো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়নি।

লাইনটির নির্মাণকাজ ২০১১ সালে শুরু হয় এবং প্রাথমিকভাবে ২০২০ সালে কাজ শেষ করার লক্ষ্য ধরা হয়। যদিও একাধিকবার প্রকল্পটি বিলম্বিত হয়েছে।
সিরোইস বলেন, কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকেই প্রত্যক্ষ কোনো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়নি। গুরুত্বপূর্ণ এই অবকাঠামো প্রকল্প নির্মাণের ধকল পোহাতে হচ্ছে ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। বিআইএর সদস্য কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই প্রকল্পটির বিরুদ্ধে নয় এবং তারা চায় নগরীতে আরও ট্রানজিট নির্মিত হোক। তবে ছোট ব্যবসার কাঁধে চেপে ট্রানজিট নির্মিত হওয়া উচিৎ নয়।

এদিকে মেট্রোলিংকসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফিল ভেস্টার এক বিবৃতিতে বলেছেন, ক্রসলিংকস ট্রানজিট সলিউশন নির্মাণের দায়িত্বপ্রাপ্ত কনসোর্টিয়াম প্রকল্পটি নির্মাণে পিছিয়ে আছে এবং সময়মতো নির্মাণ কাজ চূড়ান্ত ও পরীক্ষা করতে সক্ষম হয়নি। ক্রসলিংকস ট্রানজিট সলিউশনকে জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে মেট্রোলিংকস সম্ভাব্য সবকিছু করবে এবং তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণে প্রচেষ্টা দ্বিগুন বাড়িয়ে দেবে। তবে নতুন কোনো সময়সীমা ঘোষণা করেননি তিনি।

সিরোইস বলেন, এজন্য যদি এক বছর, ১৮ মাস সময় লাগে তাহলে আমাদের এর দরকার নেই। এটা শেষ করতে হবে।
ক্রসলিংকস এর আগে ২০২০ সালের অক্টোবরে মেট্রোলিংকস ও ইনফ্রাস্টাকচার অন্টারিওর বিরুদ্ধে মামলা করে। তাতে বিলম্ব ও ব্যয় বৃদ্ধির জন্য তাদেরকে জবাবদিহিতার আওতায় না আনার পক্ষে যুক্তি দেওয়া হয়। কারণ হিসেবে তারা কোভিড-১৯ মহামারির কথা উল্লেখ করে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles