16.1 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

শিরোপা ছুঁতে পাকিস্থানের দরকার ১৭১ রান

শিরোপা ছুঁতে পাকিস্থানের দরকার ১৭১ রান

এশিয়া কাপের ফাইনালের মহারণে ভানুকা রাজাপাকসের ফিফটিতে ভর করে ভালো সংগ্রহ পেয়েছে শ্রীলংকা। প্রথমে ব্যাট করা লংকানরা নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান করেছে।

- Advertisement -

আজ রোববার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে লড়ছে দুদল। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ম্যাচটি শুরু হয়। যেখানে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম।

প্রথম ওভারেই উইকেট তুলে নেন নাসিম শাহ। ওভারের তৃতীয় বলে কুসল মেন্ডিসকে বোল্ড করেন এই পাকিস্তানি গতি তারকা। এরপর লংকান শিবিরে জোড়া আঘাত করেন হারিস রউফ। ওপেনার পাথুম নিসাঙ্কাকে ৮ রানে ফেরানোর পর দানুশকা গুনাথিলাকাকে বোল্ড করেন এই ডানহাতি।

পাওয়ার প্লের পর স্পিন আক্রমণ আনেন বাবর আজম। সফলতাও পায় পাকিস্তান। ভালো খেলতে থাকা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ইফতিখার আহমেদের বলে তাকেই ক্যাচ দেন। ২১ বলে ৪টি চারে ২৮ করেন ধনাঞ্জয়া। এরপর আরেক স্পিনার শাদাব খান বোল্ড করেন শ্রীলংকান অধিনায়ক দাসুন শানাকাকে।

ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় শ্রীলংকা। ভানুকা রাজাপাকসে ও হাসারাঙ্গা ডি সিলভা ৩৬ বলে ৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। অবশেষে এই জুটি ভাঙেন রউফ। হাসারাঙ্গাকে উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ রিজওয়ানের ক্যাচ বানান তিনি। এই ব্যাটার ২১ বলে ৫টি চার ও একটি ছক্কায় ৩৬ করেন।

শ্রীলংকা সপ্তম উইকেটে ফের ঝড় তোলে। এবার রাজাপাকসে চামিকা করুনারত্নের সঙ্গে ৩১ বলে অপরাজিত ৫৪ রানের জুটি গড়েন। দুর্দান্ত ব্যাট করা রাজাপাকসে ৪৫ বলে ৬টি চার ও ৩টি চক্কায় ৭১ রানে অপরাজিত থাকেন। এটি তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে তৃতীয় হাফসেঞ্চুরি। করুনারত্নে ১৪ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

পাকিস্তান বোলারদের মধ্যে ৩টি উইকেট পান রউফ। এছাড়া একটি করে উইকেট দখল করেন নাসিম, শাদাব ও ইফতিখার।

এ ম্যাচে পাকিস্তান একাদশে ফিরলেন নাসিম শাহ ও শাদাব খান। বাদ পড়েছেন হাসান আলী, উসমান কাদির। তবে শ্রীলংকা একাদশ অপরিবর্তিত রয়েছে।

এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে মুখোমুখি শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। যেখানে এর আগে পাঁচবার আসরটির শিরোপা জিতেছে লংকানরা। আর পাকিস্তান জিতেছে দুবার। বাদ পড়া ভারত রেকর্ড ৭বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

শ্রীলংকা একাদশ: পাথুম নিসাঙ্কা, কুসল মেন্ডিস (উইকেটরক্ষক), দানুশকা গুনাথিলাকা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, ভানুকা রাজাপাকসে, দাসুন শানাকা (অধিনায়ক), ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, চামিকা করুনারত্নে, প্রমোদ মাদুশান, মহেশ থিকশানা, দিলশান মদুশঙ্কা।

পাকিস্তান একাদশ: মোহাম্মদ রিজওয়ান, বাবর আজম, ফখর জামান, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ নওয়াজ, শাদাব খান, আসিফ আলী, হারিস রউফ, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ হাসনাইন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles