25.5 C
Toronto
সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২

নারীর ভাবাবেগে আঘাত! নগ্ন ফটোশুটে রণবীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

- Advertisement -
নারীর ভাবাবেগে আঘাত! নগ্ন ফটোশুটে রণবীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের
ছবি সংগৃহীত

‘পেপার’ ম্যাগাজিনের জন্য নগ্ন ফটোশুট করে রাতারাতি শোরগোল ফেলে দিলেও, সেই ফটোশুট নিয়েই এবার বিপাকে পড়লেন বলিউড অভিনেতা রণবীর সিং।

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, রণবীরের নগ্ন ফটোশুটের বিরোধিতা করে মুম্বাই পুলিশে জমা পড়েছে অভিযোগ। অভিযোগপত্রে লেখা রয়েছে, এই ফটোশুটের মধ্যদিয়ে রণবীর সিং নারীদের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন। তবে কে বা কারা এই অভিযোগ দায়ের করেছেন তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, কেউ বলছেন, ওরকম সুঠাম চেহারা নেই। কারও মতে বাঙালিদের শারীরিক গঠন, সংস্কৃতি ও মানসিকতার সঙ্গে নগ্নতাটা ঠিক যায় না। মোদ্দা কথায়, বলিউডি তারকা রণবীর সিংয়ের মতো নিপাট উদোম হয়ে ছবি তুলতে আগ্রহী, বাংলার সেলিব্রিটি জগতে এমন বিশেষ কারও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এ প্রসঙ্গে খোলাখুলি কারণও ব্যাখা করেছেন কেউ কেউ।

অতি সম্প্রতি আন্তর্জাতিক এক ম্যাগাজিনের জন্য সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে ফটোশ্যুট করেছেন রণবীর সিং। ফরাসে শুয়ে থাকা সে ছবিতে দেখা গিয়েছে রণবীরের গায়ে একটুকরো সুতোও নেই। যে ছবি ঘিরে তোলপাড় নেটদুনিয়া। উঠে আসছে লিঙ্গবৈষম্যের মতো বিষয়ও। অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী রণবীরের ওই ছবি শেয়ার করে সামাজিক মাধ্যমে লিখেছেন, ‘ইন্টারনেটে রণবীরের ওই ছবির তলায় লাইকের বন্যা উপচে পড়ছে। প্রশ্ন একটাই, এটি যদি কোনও নারীর ছবি হতো, তাহলে কি একই রকম ভাবে প্রশংসা আসত। না কি তার নামের আগে নির্লজ্জ তকমা এঁটে দেওয়া হত।’ মিমির কথায় ভুল কিছু দেখছেন না অভিনেতা রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়। রাহুলের বক্তব্য, সমাজের মাথায় যারা বসে আছেন তাদের মেয়েদের বিষয়ে নাক সিঁটকানোটা একটু বেশি। পুরুষকে তাঁরা অনেক বেশি ছাড় দিয়ে রেখেছেন।

অগুনতি সেলিব্রিটি আবার বলছেন, বাঙালিদের সঙ্গে নগ্নতাটা ঠিক যায় না। কেন? অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রর যুক্তি, “হলিউডের টাইটানিক সিনেমায় কেট উইন্সলেটের যৌন মিলনের দৃশ্য স্বতঃস্ফূর্ত, ঝকঝকে। তা দেখতে এতটুকু খারাপ লাগে না। কিন্তু এমন দৃশ্যায়ন টালিউডে করতে গেলে দেখা যাবে তা কুৎসিত লাগছে।” অভিনেত্রীর অনুভূতি, বাঙালি নারীর যে শারীরিক গঠন, সৌন্দর্য, তার সঙ্গে নগ্নতা বিষয়টা খাপ খায় না। তাই এ দেশের কোনও ফোটোগ্রাফার তাকে নগ্ন ছবি তোলার অফার দিলে ফিরিয়ে দেবেন শ্রীলেখা। বরং বিদেশের কেউ সে অফার দিলে তিনি ভেবে দেখতে পারেন। কেন এমনটা? “ছবিটা কে কীভাবে তুলছে তার উপর অনেক কিছু নির্ভর করে।” জানিয়েছেন শ্রীলেখা।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles